• ঢাকা
  • বুধবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০, ০৪:৫৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০, ০৪:৫৯ পিএম

সেবার নামে অর্থ লুট, দালাল চক্রের আটক ৮

বরিশাল সংবাদদাতা
সেবার নামে অর্থ লুট, দালাল চক্রের  আটক ৮
সেবার নামে অর্থ লুটে দালাল চক্রের আটক ৮ জন। ছবি-জাগরণ

বরিশাল নগরীর বাটারগলিতে অভিযান চালিয়ে দালাল চক্রের ৮ জনকে আটক করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাদের বিচার ব্যবস্থার মুখোমুখি করে প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদণ্ড দেন।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী ছিলেন জেলা প্রশাসনের সহকারি ম্যাজিস্ট্রেট নিরুপম মজুমদার। 

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার এই অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করে বরিশাল মেট্রোপলিটন ডিবি পুলিশের একটি টিম।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, শহরের অধিকাংশ প্রাইভেট ডায়াগনস্টিক ও ক্লিনিকগুলো দালাল নির্ভর হয়ে পড়েছে। দূর-দূরান্ত বা দুর্গম জনপদ থেকে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগীদের জিম্মি করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার বহু অভিযোগ রয়েছে এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। বিশেষ করে সক্রিয় দালাল চক্র শহরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে গ্রামগঞ্জ থেকে আগন্তক রোগীদের টানাটানি করে নিজেদের ইচ্ছেমত ডায়াগনস্টিক বা ক্লিনিকে নিয়ে সেবার নামে অর্থ লুট করছে। মূলত এসব খবর নিশ্চিত হয়েই সোমবার সকালে তাদের ধরতে মাঠে নামে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, সহকারি ম্যাজিস্ট্রেট নিরুপম মজুমদারের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত বাটারগলিতে হানা দিয়ে ডিবি পুলিশের সহায়তায় দালাল আলমগীর হোসেন (৩২), মাসুম (৪০), সাবু হাওলাদার (৫০), হানিফ হাওলাদার (৪০), আনোয়ার হোসেন (৪৫), শাহীন মৃধা (৩৫), জামাল হোসেন (৩০) এবং আনেয়ার হোসেনকে (৪০) হাতেনাতে আটক করেন। পরে বিচার ব্যবস্থার মাধ্যমে তাদের প্রত্যেককে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের সহকারি ম্যাজিস্ট্রেট নিরুপম মজুমদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ডায়াগনস্টিক ও ক্লিনিকগুলো দালালমুক্ত করতে তাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

জাগরণ/এমএইচ

আরও পড়ুন