• ঢাকা
  • শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০, ০৭:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০, ০৭:২৩ পিএম

বিদ্যুৎ-জ্বালানির দাম বছরে একাধিকবার পরিবর্তনের বিলে সায়

জাগরণ ডেস্ক
বিদ্যুৎ-জ্বালানির দাম বছরে একাধিকবার পরিবর্তনের বিলে সায়

বিদ্যুৎ ও জ্বালানির মূল্য বছরে একাধিকবার পরিবর্তনের সুযোগ রেখে এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আইন সংশোধনের লক্ষ্যে জাতীয় সংসদে উত্থাপিত বিলে সায় দিয়েছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। 

জাতীয় সংসদ ভবনে আজ রোববার সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এই বিলটি নিয়ে আলোচনা হয়। আলোচনা শেষে কিছু সংশোধনীসহ বিলটি পাসের সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি মো. শহীদুজ্জামান সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য প্রতিমন্ত্রী সদস্য নসরুল হামিদ, মো. আবু জাহির, মো. আলী আজগর, মো. নূরুল ইসলাম তালুকদার, মো. আছলাম হোসেন সওদাগর ও বেগম নার্গিস রহমান এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

‘বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (সংশোধন) বিল-২০২০’ জাতীয় সংসদে পাস হলে এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন বছরে এক বা একাধিকবার বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডিজেল, পেট্রলসহ জ্বালানির দাম পরিবর্তন করতে পারবে।

সংসদীয় কমিটির বৈঠকে বিলটি নিয়ে আলোচনা শেষে কতিপয় সংশোধনীসহ বিলটি পাসের সুপারিশ করে সংসদে প্রতিবেদন উপস্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

গত ২৩ জুন জাতীয় সংসদ অধিবেশনে বিলটি উত্থাপনের পর তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটিকে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। গত ডিসেম্বরে বিলটি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেয়া হয়।

বিলে বলা হয়েছে, কমিশন কর্তৃক নির্ধারিত ট্যারিফ কোনো অর্থবছরে কমিশনের একক বা পৃথক পৃথক আদেশ দ্বারা, প্রয়োজন অনুসারে এক বা একাধিকবার পরিবর্তন করতে পারবে। এই বিধান কার্যকর হলে এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন বছরে এক বা একাধিকবার বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডিজেল, পেট্রলসহ অন্যান্য জ্বালানির দাম পরিবর্তন করতে পারবে।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি জ্বালানি সরবরাহ কাঠামোতে দ্রুত পরিবর্তন ঘটায় আইনটি সংশোধনের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে। ২০০৩ সালে প্রণীত বিদ্যমান আইনে বিধান ছিল, কমিশনের নির্ধারিত ট্যারিফ কোনো অর্থবছরে একবারের বেশি পরিবর্তন করা যাবে না, যদি না জ্বালানি মূল্যের পরিবর্তনসহ অন্য কোনো পরিবর্তন ঘটে। প্রস্তাবিত আইনে এটা পরিবর্তন করা হয়েছে।

জাগরণ/এমইউ