• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯ জুন, ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুন ১২, ২০১৯, ০৪:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১২, ২০১৯, ০৪:২৩ পিএম

আবার #মি-টু নিয়ে মাধুরী দীক্ষিত

বিনোদন ডেস্ক
আবার #মি-টু নিয়ে মাধুরী দীক্ষিত

কয়েকমাস আগেও #মি-টু আন্দোলনের উত্তেজনা ছিল বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তা অনেকটাই ঝিমিয়ে পড়েছে। গত বছর অলোক নাথ, বিকাশ বহেল, কৈলাশ খের, রজত কাপুর থেকে শুরু করে বলিউডের অনেক সনামধন্য ব্যক্তিত্বের নাম উঠে এসেছে এই আন্দোলনের হাত ধরে। তবে সম্প্রতি পরিচালক বিকাশ বহেল ক্লিনচিট পাওয়ায় আবার #মি-টু নিয়ে উত্তেজনা শুরু হয়েছে বলিউডে। এবার #মি-টু নিয়ে মুখ খুললেন চিত্রনায়িকা মাধুরী দীক্ষিত।

লাস্যময়ী মাধুরীর মতে, শুধু বিনোদন জগতেই নয়, বরং সবক্ষেত্রে স্থান-কাল-পাত্র নির্বিশেষে মেয়েদের নিরাপত্তার কথা ভাবা উচিত। যে কোনও পরিস্থিতিতেই মেয়েদের নিরাপত্তার বিষয়টি এগিয়ে রাখা উচিত। অনেকেই রয়েছেন যারা রাস্তাঘাটে যানবাহনে যৌন নির্যাতনে শিকার হন, তাদের কথাও মাথায় রাখা উচিত। তিনি বলেন, ‘জনপ্রিয় ব্যক্তিদের কুকীর্তির কথা অনেকেই অবগত আছেন। কিন্তু সাধারণ মানুষের কথা ভাবুন। যাদের চেহারা অচেনা। তাদের হাতে প্রতিনিয়ত মেয়েরা কীভাবে যৌন হেনস্তা হচ্ছেন। সেই মহিলা ট্রেনে, প্লেনে, বাসে কিংবা প্রকাশ্যে যৌন অত্যাচারের শিকার হচ্ছেন। যদি মেয়েদের হেনস্তামূলক সমস্যাকে নির্মূল করতে হয় এবং সুরক্ষিত পরিবেশ চান, তাহলে প্রত্যেক পরিবারের সদস্যদের শিক্ষিত হতে হবে। আর বেশি করে শিক্ষিত মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে মেয়েদের হেনস্তার বিরুদ্ধে। যাদের সাহায্যে নিয়ে নিজেদের যুদ্ধটা নির্ভয়ে করতে পারবেন মেয়েরা।’

তবে হ্যাঁ, শিক্ষিত ব্যক্তিরা সেই লড়াইটাকে কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যাবেন, সেই বিষয়টা সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ। শুধু চলচ্চিত্রের ভিতরেই নয়, সর্বক্ষেত্রেই এই হেনস্তা বন্ধ হোক, এটাই চান মাধুরী দীক্ষিত।

#মি-টু আন্দোলন প্রসঙ্গে এর আগেও উত্তেজনা ছড়িয়েছিলেন মাধুরী দীক্ষিত। জানিয়েছিলেন, অলোকনাথ এবং সৌমিক সেনের মতো ব্যক্তিদের সঙ্গে নিকট সম্পর্কই ছিল তার। কিন্তু #মি-টু আন্দোলনের জেরে তাদের অজানা দিক জানার পর বেশ অস্বস্তিই হয়েছিল এই অভিনেত্রীর। অলোকনাথের মতো ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে জেনে হতভম্ব হয়ে গিয়েছিলেন মাধুরী। ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’, ‘জামাই রাজা’সহ বহু হিট সিনেমায় মাধুরীর সঙ্গে অভিনয় করেছেন অলোকনাথ। সব ক্ষেত্রেই মাধুরীর অভিভাবকের ভূমিকায় দেখা গেছে তাকে। অন্যদিকে, ‘গুলাব গ্যাং’ সিনেমায় দৌলতেই পরিচালক সৌমিক সেনের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল মাধুরীর। 

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ‘সুপার ৩০‘ পরিচালক বিকাশ তার উপর আনা #মি-টু মামলায় ক্লিনচিট পেয়েছেন, যেই ঘটনার প্রতিবাদে অভিনেত্রী তাপসী পান্নুসহ একাধিক তারকা মুখ খুলেছিলেন। অন্যদিকে, পুরুষদের উদ্দেশে বলিউডে করণ ওবেরয়ের হাত ধরে শুরু হয়েছে #মেন-টু আন্দোলন। যদিও #মি-টু’র মতো #মেন-টু আন্দোলন সেভাবে উত্তেজনা ছড়াতে পারেনি বলিউডে। ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত করণও ক্লিনচিট পেয়ে গেছেন।

এসজে

Space for Advertisement