• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: জুন ২৭, ২০১৯, ০১:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২৭, ২০১৯, ০১:৫৩ পিএম

অভিনয়কে নওশীনের গুডবাই

বিনোদন প্রতিবেদক
অভিনয়কে নওশীনের গুডবাই

অভিনয় ও মডেলিং থেকে বিদায় নেয়ার ঘোষণা দেন নওশীন নাহরিন মৌ। সম্প্রতি পবিত্র ওমরাহ পালন শেষে দেশে এসে তিনি এই ঘোষণা দেন। তার বিদায় নিয়ে নানা সমালোচনা তৈরি হয়েছে মিডিয়ায়। এ মুহূর্তে তার অভিনীত সবশেষ ধারাবাহিক ‘ঘরে বাইরে’ মাছরাঙা টিভিতে প্রচারিত হচ্ছে। নাটকটি পরিচালনা করছেন নজরুল ইসলাম রাজু। 

সম্প্রতি অভিনয় শিল্পী সংঘের নির্বাচনে স্বামী হিল্লোলের সঙ্গে খুব সাবলীলভাবে হিজাব পরে ভোট দিতে শিল্পকলায় তাকে দেখা গেছে। বিদায় প্রসঙ্গে নওশীন জানান, অনেক আগে থেকেই পরিকল্পনা ছিল অভিনয় থেকে বিদায় নেয়ার। নানা কারণে সেটা বাস্তবায়ন করতে দেরি হয়ে যায়। তবে এবার সে পরিকল্পনাটিই বাস্তবায়ন করেছি। এখন থেকে আমাকে আর অভিনয় ও মডেলিংয়ে দেখা যাবে না। বর্তমানে আমার হাতেও আর কোনো কাজ নেই। নতুন কোনো কাজেও যুক্ত হইনি। কিছুদিন আগে ওমরাহ পালন করে এসেছি। এরপরই অভিনয় থেকে সরে এসেছি। নিজের ইচ্ছাতেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।


ছোট পর্দার সবচেয়ে আবেদনময়ী মডেল ও অভিনেত্রী ছিলেন নওশীন। রূপ-যৌবন আর পর্দার পারফরমেন্স দিয়ে বহুপুরুষের রাতের ঘুম হারাম করছেন তিনি। ক্যারিয়ারে দীর্ঘ সময় পাড়ি দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। তার পারফরমেন্স নিয়ে যতটা আলোচনা ছিল তারচেয়ে বেশি সমালোচনা ছিল তার ব্যক্তি জীবন নিয়ে। সর্বশেষ তাকে নিয়ে সঙ্গীতশিল্পী মিলা ইসলাম তার সাবেক স্বামী সানজারির সঙ্গে অন্তরঙ্গ সম্পর্কের অভিযোগ এনেছিলেন। এর আগে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন অভিনেত্রী শ্রাবস্ত্রী দত্ত তিন্নি। অভিযোগে তিনি বলেন, নওশীন তার স্বামী হিল্লোলকে তার কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে বিয়ে করেন। এমন আরো অনেক অভিযোগের পাহাড় নিয়েই অভিনয় থেকে বিদায় নিচ্ছেন নওশীন। 

অভিনয়ে নিজস্ব ধরন ও বলয় তৈরি করে ভক্তদের মাঝে নিজের দ্যুতি ছড়িয়েছেন। ব্যক্তিগত জীবনে ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই একাধিক পুরুষের সঙ্গে নওশীনের সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়েছেন। হিল্লোলের আগে তার বিয়ে, পরকিয়া, ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ভিডিও প্রকাশ, চালচলনে দৈহিক আবেদনের সুচারু প্রভাবে অনেকেই নামে-বেনামে বিমোহিত হয়েছেন। সমালোচকদের ভাষ্য, ক্যারিয়ারজুড়ে নিজেকে বিতর্কিত রাখতেই যেন ব্যস্ত এই অভিনেত্রী। অথচ অভিনয়ে সাবলীল উপস্থাপন ছিল তার প্রধান বৈশিষ্ট্য।

এদিকে অভিনয় ছাড়ার খবরে সমালোচকরা প্রশ্ন রেখেছেন ওমরার সঙ্গে অভিনয় ছাড়ার সম্পর্ক কি? তাদের মতে, নিজেকে গুছিয়ে চলতে পারলে ধর্ম অবশ্যই সংস্কৃতিচর্চার বাধার কারণ হয় না। নওশীন ওমরা করে অভিনয় থেকে বিদায়ের ঘোষণা দিয়ে সংস্কৃতিচর্চার সঙ্গে ধর্মের একটা দূরত্ব তৈরি করতে চেয়েছেন।

এসজে  

Islami Bank