• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: জুলাই ১১, ২০১৯, ০৩:২৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১১, ২০১৯, ০৩:৩৩ পিএম

বিয়ের পিঁড়িতে এবার শ্রদ্ধা কাপুর

বিনোদন ডেস্ক
বিয়ের পিঁড়িতে এবার শ্রদ্ধা কাপুর

আনুশকা, দীপিকার পর এবার শ্রদ্ধা কাপুরের পালা৷ বলিউড গুঞ্জনে শোনা যায়, ২০২০ সালের শুরুতেই বিয়ে করতে চলেছেন শ্রদ্ধা কাপুর ৷ বর তার দীর্ঘদিনের বন্ধু রোহন শ্রেষ্ঠা। তার সাথেই সাতপাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন শক্তি কাপুর কন্যা শ্রদ্ধা৷

ইতিমধ্যেই শ্রদ্ধার বাড়িতে বিয়ে নিয়ে তোড়জোড় শুরু হয়ে গেছে৷ কীভাবে বিয়েটা আনুষ্ঠানিকতা ঠিক হবে, তা নিয়েই শ্রদ্ধার মা-বাবা-বোন সবাই প্ল্যান করছেন৷ তবে এ ব্যাপারে একেবারেই চুপ রয়েছেন শ্রদ্ধা৷ বিয়ের ব্যাপারে কোনওরকম মন্তব্য করতে চাইছেন না তিনি৷

ফারহান আখতারের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার পর বলিউড অঙ্গণে বহুদিন ধরেই শ্রদ্ধা-রোহনের সম্পর্কের কথা শোনা যাচ্ছে। ২০১৮ থেকেই সম্পর্কে রয়েছেন তারা। যদিও বিয়ের বিষয়ে মুখ খোলেননি দুজনের কেউই। তার উপর শক্তি কাপুর পুরোটাকেই গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এ খবরের কোনো বাস্তবতা নেই। আগামী ৪-৫ বছর বিয়ের কথাই ভাবছে না শ্রদ্ধা। এই মুহূর্তে প্রচুর সিনেমা রয়েছে তার হাতে। আগামী ২ বছর পর্যন্ত ওর শিডিউল ফাঁকা নেই।’ অপরদিকে আবার শোনা যায়, শ্রদ্ধার মা শিবাঙ্গী কাপুর মেয়ের বিয়ের ব্যপারে অনেক কিছু ভেবে রেখেছেন। ফারহানের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার পর শ্রদ্ধা আর দেরি করতে চাইছেন না। শ্রদ্ধাও চাইছেন দেরি না করে রোহনের সঙ্গে তার বিয়েটা সেরে ফেলতে। তবে শ্রদ্ধাও চাইছেন বিয়ের পরও অভিনয় চালিযে যাবেন।

এর আগে শ্রদ্ধার সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে রোহন বলেছেন, ‘গত ৯ বছর ধরে আমাদের খুবই ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। একটা পার্টিতে আমি প্রথম শ্রদ্ধাকে দেখি। প্রথম দেখাতেই খুব মিষ্টি লেগেছিল ওকে। সেই থেকে আমরা শুধুই দুজন ভালো বন্ধু।’

‘সাহো’ সিনেমায় প্রভাসের সঙ্গে শ্রদ্ধা

প্রসঙ্গত, রোহন শ্রেষ্ঠা হলেন খ্যাতিমান ফটোগ্রাফার রাকেশ শ্রেষ্ঠার ছেলে। রোহন নিজেও একজন ভালো ফটোগ্রাফার। ২০২০ সালের প্রথমেই রোহন ও শ্রদ্ধা সাতপাকে বাঁধা পড়বেন বলে খবর শোনা যায়। এদিকে মুক্তি পেয়েছে প্রভাস ও শ্রদ্ধা কাপুর অভিনীত দক্ষিণী সিনেমা ‘সাহো’র টিজার ও প্রথম গান। এটি শ্রদ্ধার প্রথম দক্ষিণী সিনেমা। এছাড়াও আগামী বছর মুক্তি পাবে ‘স্ট্রিট ডান্সার থ্রিডি’ ও ‘বাঘি থ্রি’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমা।

এসজে
 

Islami Bank