• ঢাকা
  • রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯, ০২:৫৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯, ০৩:১১ পিএম

শিডিউল ফাঁসানোয় শাকিব খানকে নোটিশ

সুহৃদ জাহাঙ্গীর
শিডিউল ফাঁসানোয় শাকিব খানকে নোটিশ

ঢাকাই চলচ্চিত্রের নাম্বার ওয়ান সুপার স্টার এখন শাকিব খান। পারিশ্রমিক হিসেবে সিনেমা প্রতি সর্বোচ্চ ৬০ লাখ নিয়ে রেকর্ড গড়েছেন। কিন্তু আয়কর কত দেন সেটা হাইড করে যান বরাবর। তিনি একজন পেশাদার অভিনয় শিল্পী হিসেবেই স্বীকৃত। সেই পেশাদার শিল্পীর বিরুদ্ধে শিডিউল ফাঁসানোর গুরুতর অভিযোগ এনেছেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান। এটি এখন টক অব ঢালিউড।

জানা যায়, পারিশ্রমিকের পুরো ৬০ লাখ নিয়েও চলচ্চিত্রের কাজ শেষ না করেই শিডিউল ঘাপলায় ফেলেন পরিচালক ও প্রযোজককে। তাই শাকিব খানের কাছে নোটিশ পাঠিয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া। গত বছর এই প্রতিষ্ঠানের প্রযোজনায় ও শাহিন সুমনের পরিচালনায় ‘একটু প্রেম দরকার’ নামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন শাকিব।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির অভিযোগ, বেশ লম্বা সময় নিয়ে কোনোমতে চলচ্চিত্রটির শুটিং শেষ করলেও শাকিব খান এখনো ডাবিং শেষ করেননি। বার বার তাকে অনুরোধ করেও ডাবিং শিডিউল না পেয়ে চলচ্চিত্রটির কাজ শেষ করার জন্যে শাকিবের কাছে নোটিশ পাঠালো শাপলা মিডিয়া।

আলোচিত এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার সেলিম খান নিজেই গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শাকিব খানকে পাঠানো এই নোটিশের অনুলিপি তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদসহ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতি, পরিচালক সমিতি ও শিল্পী সমিতির কাছেও পাঠানো হয়েছে। নোটিশে বলা হয়েছে, শাকিব খান এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করার জন্য ৬০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছেন। তার পারিশ্রমিক পরিশোধ করা হলে ২০১৮ সালের ২৬ জুন রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে চলচ্চিত্রের মহরতে অংশ নেন তিনি। ২৫ সেপ্টেম্বর শুটিং শুরু করেন শাকিব খান।

তবে শিডিউল অনুযায়ী প্রায়শঃ শুটিংয়ে অনুপস্থিত থাকতেন শাকিব খান। আর তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান। তিনি এই নোটিশে আরও উল্লেখ করেন- শাকিবের অনিয়মের জন্য চলচ্চিত্রটির নির্মাণে অতিরিক্ত ১ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর চলচ্চিত্রটি মুক্তির ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। কাজ অসম্পূর্ণ থাকায় সেই সময় এটি মুক্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। আবারও আগামী ১৬ ডিসেম্বর চলচ্চিত্রটি মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাপলা মিডিয়া। কিন্তু শাকিবের শিডিউল না পাওয়ায় ডাবিং শেষ করতে পারছেন না পরিচালক শাহীন সুমন। আর তাই চলচ্চিত্রটির নির্মাণ কাজ আটকে আছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, আগামী সাত দিনের মধ্যে শাকিব চলচ্চিত্রটি শেষ করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত না নিলে চলচ্চিত্রটি নির্মাণে এ পর্যন্ত খরচ হওয়া দুই কোটি ৩১ লাখ ৩৮৩ টাকা এবং শাপলা মিডিয়ার এক বছরের ক্ষতিপূরণ দিয়ে চলচ্চিত্রটি শাকিব খানের মালিকানায় নেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। অন্যথায় শাকিব খানের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন চলচ্চিত্রটির প্রযোজক সেলিম খান।

শাকিব খানকে পাঠানো এই নোটিশ নিয়ে গণমাধ্যম সরগরম হয়ে উঠলেও বিষয়টি নিয়ে এখনও তার কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তিনি শুটিং লোকেশন দেখতে দুবাই ও মুম্বাই অবস্থান শেষে গতকাল বুধবার ( ১১ সেপ্টেম্বর ) দেশে ফিরেছেন। এখন দেখার বিষয়- এই নোটিশ নিয়ে তিনি কী প্রতিক্রিয়া দেখান।

এসজে


 

আরও পড়ুন

Islami Bank