• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: জুলাই ৩, ২০২০, ০২:৫১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ৩, ২০২০, ০২:৫১ পিএম

‘তেরে নাম’ থেকে অনুরাগকে ছুড়ে ফেলেন সালমান!

বিনোদন ডেস্ক
‘তেরে নাম’ থেকে অনুরাগকে ছুড়ে ফেলেন সালমান!

ঢাকা : সালমান খানের ক্যারিয়ারে অন্যতম সিনেমা ‘তেরে নাম’। সতীশ কৌশিকের পরিচালনায় সিনেমাটি ভীষণ হিট, ভাইজানের অনুকরণে নতুন হেয়ার কাট ও পোশাক পরার রীতি চালু হয়ে যায়।

অথচ শুরুতে এই সিনেমার পরিচালক ছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ। ওই সময় তিনি রাম গোপাল ভার্মার সহকারী হিসেবে কাজ করছিলেন।

‘তেরে নাম’ মূলত দক্ষিণ সিনেমার রিমেক। যার রাইটস কিনেছিলেন রামু। সেই চিত্রনাট্যে বেশ ঘষামাজাও করেন অনুরাগ। পরে তিনি জানান, এ সিনেমার জন্য তার পছন্দ ছিলেন সঞ্জয় কাপুর। কারণ সালমানকে কখনো উত্তর প্রদেশের তরুণের ভূমিকায় যথাযথ মনে হয়নি। তা সত্ত্বেও প্রযোজকের কথা মেনে নেন। কিন্তু জটিলতা বাধে অন্য জায়গায়। এর জেরে সিনেমা থেকে বাদ পড়েন অনুরাগ। কিন্তু সত্য হলো, তার প্রতিভা ঠিকই প্রকাশ হয়েছে।

চরিত্রের গেটআপ মাথায় রেখে সালমানকে নবীন নির্মাতা অনুরাগ বলেন, বুকের লোম বড় করতে। তাহলে মথুরার তরুণ চরিত্রে মানিয়ে যাবে। এমন পরামর্শ শুনে সালমান কিছুই বলেনি শুধু অনুরাগের দিকে খানিকক্ষণ তাকিয়ে ছিলেন।

এর পরপরই প্রযোজকের অফিস ডাক পড়ে অনুরাগের। তিনি পরিচালকের দিকে একটি কাঁচের বোতল ছুড়ে মারেন। সালমানকে পরামর্শ দেওয়ায় গালাগালিও করেন।

পরে সতীশ ‘তেরে নাম’ নির্মাণ করেন, সুপারহিট ব্যবসাও করে। তবে সালমান ও অনুরাগ কেউ কাউকে পছন্দ করেন না এখনো।

সম্প্রতি অনুরাগের ভাই অভিনব সিনহা কাশ্যপ অভিযোগের আঙুল তুলেছেন খান পরিবারের দিকে। সালমানের ‘দাবাং’ সিনেমার এই পরিচালক জানান, খান পরিবার তার ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দিয়েছে। এমনকি মানসিক যন্ত্রণায় এক পর্যায়ে সংসারও ছেড়ে এসেছেন তিনি। এরপর আইনি ব্যবস্থার হুমকি দেন আরবাজ খান। এই সব বিষয়ে মন্তব্য করেননি ‘গ্যাংস অব ওয়াসিপুর’ নির্মাতা অনুরাগ। তবে কয়েক বছর ধর্ষণ নিয়ে মন্তব্যের কারণে সালমানকে ক্ষমা চাইতে বলেন অনুরাগ।

সোনালীনিউজ/এমটিআই