• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০, ০১:৪৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০, ০১:৪৮ পিএম

ইমেজ সব নষ্ট হয়ে যাবে?

জাগরণ ডেস্ক
ইমেজ সব নষ্ট হয়ে যাবে?
মিমি চক্রবর্তী

বলিউডের পিতৃতন্ত্রের বিরুদ্ধে এবার বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন টলিউড অভিনেত্রী ও তৃণমূল সংসদ সদস্য মিমি চক্রবর্তী। তার প্রশ্ন মাদক সংশ্লিষ্টতায় লক্ষ্য শুধু নায়িকারাই কেন?  আইনের স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় নায়িকাদের পাশাপাশি নায়কদের মাদক সংশ্লিষ্টতা নিয়েও তদন্তের দাবি করেন এই অভিনেত্রী। 

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে মিমি বলেন, ‘বলিউডে নায়িকারাই শুধু মাদকাসক্ত! পুরুষেরা কী করেন? ঘর পরিষ্কার করেন, রান্না করেন আর জোড়হাতে তাদের বউদের জন্য প্রার্থনা করেন, ভগবান ওদের রক্ষা কর?’ এই প্রথম বলিউডের সঙ্গে ড্রাগ নিয়ে এনসিবি তদন্তের প্রকাশ্য সমালোচনা করলেন তিনি।

মিমি আরো বলেন, ‘কোনো মেয়ে যদি কাজের মাধ্যমে ক্ষমতাশালী হয়, সুন্দরী হয়, অভিনেত্রী হয় তাকে সবাই দেখতে চাইবে। এখন মাদকযোগে এনসিবি শুধু অভিনেত্রীদের ডেকে পাঠাল? ছেলেরা কি ধোয়া তুলসীপাতা?’

নিজের অভিজ্ঞতার কথা প্রসঙ্গে মিমি বলেন, ‘আমি বিশেষ কারো পক্ষ নিচ্ছি না! তবে আমি জানি একজন মেয়ে হিসেবে কেমন করে ধাপে ধাপে লড়াই করে দীপিকাকে উঠতে হয়েছে। ও নিজের বক্তব্যও বলিষ্ঠ। সেই কারণেই ও পিতৃতন্ত্রের নজরে। ওর এত পরিশ্রম। ইমেজ সব নষ্ট হয়ে যাবে? আমার খুব খারাপ লাগছে!’

দীপিকার কথা বলতে গিয়ে মিমি জানান, ‘মাদক যোগ নিয়ে তদন্ত যদি করতেই হয় তা হলে আইনগত ভাবে হোক। বেছে বেছে অভিনেত্রীদের এই সারিতে দাঁড় করানো হচ্ছে কেন।’

এই অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরেই সবাই জানল বলিউডে মাদক ব্যবসা চলে। এর আগে এই বিষয় নিয়ে কই কোনো কথা তো ওঠেনি! কেন?’ সূত্র: আনন্দবাজার

জাগরণ/এমআর