• ঢাকা
  • রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২১, ০৮:৫১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৯, ২০২১, ০৯:৩৯ এএম

অভিনেতা মুজিবুর রহমান দিলু আর নেই

অভিনেতা মুজিবুর রহমান দিলু আর নেই

না ফেরার দেশে চলে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা মুজিবুর রহমান দিলু। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ভোরে ৬টা ৩৫ মিনিটে রাজধানীর এক বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

তার ভাই প্রখ্যাত অভিনেতা আতাউর রহমান বলেন, “আমার ছোট ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা, কীর্তিমান মঞ্চ ও টেলিভিশান অভিনেতা মুজিবুর রহমান দিলু নিউমনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে এই পৃথিবীর মায়া ছেড়ে অসীমের যাত্রী হয়েছেন। সে জীবন যুদ্ধে যেমন ছিল এক পরাক্রান্ত সৈনিক, তেমনি ছিল এক বর্ণিল জীবনের অধিকারী। তার আত্মার চির শান্তি কামনাই দেশবাসীদের কাছে আমাদের প্রত্যাশা।"

মুজিবুর রহমান দিলুর শেষ যাত্রা সম্পর্কে জাগরণ অনলাইনকে তিনি বলেন, "সম্মান প্রদর্শণের জন্য মরদেহটি বিকেল ৩টার দিকে শিল্পকলা একাডেমিতে নিয়ে যাওয়া হতে পারে। এরপর নিজ কর্মস্থান শান্তা মরিয়মে মরদেহটি নিয়ে যাওয়া হবে। বনানী কবরাস্থানে দাফনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।"

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও গুণী এই অভিনেতা ১৯৫২ সালের ৬ নভেম্বর চট্টগ্রামে জন্ম নেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনে যাত্রা শুরু করেন ১৯৭২ সাল থেকে। মঞ্চ দাপিয়ে বেড়ানো এই অভিনেতা টেলিভিশনেও জায়গা করে নেন সমানভাবে। তবে জীবনের শেষ সময়টাতে অভিনয় থেকে নিজেকে আড়ালে রাখেন। গুণী এই অভিনেতা মৃত্যুর আগে শান্ত মরিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাহী পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন।

মঞ্চ ও টেলিভিশনে মুজিবুর রহমান দিলুর অভিনীত বেশ কয়েকটি নাটক দর্শক মনে জায়গা করে নেয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য মঞ্চনাটক হচ্ছে - 'জনতার রঙ্গশালা', 'আমি গাধা বলছি', 'নানা রঙ্গের দিনগুলি'। তার উল্লেখযোগ্য টিভি নাটক 'নীল পানিয়া', 'মহাপ্রস্থান', 'কিছু তো বলুন', 'তথাপি', 'আরেক ফাল্গুন'। উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিক নাটকের মধ্যে রয়েছে - সময় অসময় এবং সংশপ্তক।