• ঢাকা
  • রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১, ০৪:৪১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১, ০৪:৪৪ পিএম

পরিবর্তন আনতেই রাজনীতিতে সক্রিয়: শ্রীলেখা

পরিবর্তন আনতেই রাজনীতিতে সক্রিয়: শ্রীলেখা

বরাবরই বাম ফ্রন্ট সমর্থক অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। যদিও সক্রিয় রাজনীতিতে যোগ দেওয়া প্রশ্নে একটি উত্তরই জানিয়েছেন, যেদিন থেকে রাজনীতি বুঝেছেন, সেদিন থেকে এভাবেই সমর্থন জানিয়ে আসছেন বাম দলকে। তবে এখনই সক্রিয় রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করতে চান না তিনি। 

কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন সামনে রেখে ক্রমেই রাজনীতির মাঠে সক্রিয় হয়ে উঠছেন শ্রীলেখা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চোখ রাখলেই পাওয়া যাচ্ছে তার প্রমাণ। নিয়মিত চালাচ্ছেন প্রচারণা। এমনকি রোববার বাম ফ্রন্টের ব্রিগেড সমাবেশে যাওয়ার আগে আঙুলের নখে কাস্তে-হাতুড়ির ছবি আঁকিয়েছেন। দলগতভাবে উড়িয়েছেন বাম ফ্রন্টের পতাকা। এর আগে এক সমাবেশে যোগ দেওয়ার জন্য চুলে লাল রং করিয়েছিলেন। 

তাহলে কি শ্রীলেখা অবশেষে সক্রিয় রাজনীতিতে নাম লেখালেন? প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “তা বলা যায়। আমার মনে হয় রাজনীতির সঙ্গে নিজেকে জড়ানোর এখনই সময়। আমি আমার জায়গা থেকে চেষ্টা করে যাচ্ছি। দেখুন, পশ্চিমবঙ্গে পরিবর্তন দরকার। সেই পরিবর্তন আনতেই হাতে লাল পতাকা তুলে নিয়েছি। আমার বিশ্বাস, এবারই সেই পরিবর্তনটা আসবে। একটা সময় বাম দল ৩৪ বছর শাসন করেছে পশ্চিমবঙ্গ। কিছু ভুল-ত্রুটির কারণে তাদের পতন হয়েছিল। এত দিনে তারা সেই ভুল শুধরে নিয়েছে। বাম সরকারের আমলে পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়ন হয়েছে। সুতরাং বাংলায় আবারও বাম ফ্রন্ট সরকার দরকার।”

রাজনীতি ও ব্যক্তিজীবনে খোলামেলা কথা বলার জন্য সমালোচনা হয়। বিষয়টা আপনাকে কতটা ভাবায়—জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি বরাবরই সোজাসাপ্টা কথা বলি। আজকে নতুন না। আমি মিথ্যা কথা বলতে পারি না। যা বলার মুখের সামনে বলে দিই। এতে আমাকে যে যা-ই বলুক না কেন! তাতে আমি তোয়াক্কা করি না। জীবনটা আমার। কে কী বলল, সেটা নিয়ে বসে থাকলে আজকে এখানে আসতে পারতাম না।”

তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় অভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে আপনি আক্রমণ করেছেন, কেন? শ্রীলেখার উত্তর, “আক্রমণ করিনি। তার এটা করা ঠিক হয়নি। ভুল করেছে। আমি ভাবতাম সায়নী ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নেবেন। দুর্ভাগ্য, তিনিও খেলায় নেমে পড়লেন।”

যাক ওসব কথা। এবার রাজনীতি থেকে বেরোনো যাক। ক্যারিয়ার নিয়েও তো সুখবর নেই। কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি কখনো ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবিনি। আমি কাজটাই করে যাই মন দিয়ে। কোনো শিল্পী আসলে সন্তুষ্ট হতে পারে না। কোথায় আছি? কোথায় যেতে পারতাম? এসব আমাকে ভাবায় না। আমি শুধু অভিনয় করি না। সামাজিক কাজ করি, ইভেন্টের কাজ করি। টুকটাক লেখালেখি করি।”

এদিকে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, বাম ফ্রন্টের প্রার্থী হতে যাচ্ছেন শ্রীলেখা। তবে এমন সম্ভাবনাকে নাকচ করে দিয়েছেন তিনি। জানালেন, সাধারণ কর্মী হয়েই দলের পাশে থাকতে চান।