• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মে ৬, ২০২১, ০৪:৩২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ৭, ২০২১, ১২:১৬ পিএম

পরীমনির উত্থান: সাতক্ষীরা থেকে দুবাই

পরীমনির উত্থান: সাতক্ষীরা থেকে দুবাই

বর্তমান সময়ে ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন পরীমনি। এই পর্যায়ে এসে পৌঁছাতে তাকে কম কাঠ-খড় পোড়াতে হয়নি। যাত্রা শুরু করেছিলেন ছোটপর্দার মাধ্যমে। তারপর বড় পর্দায় অভিষেক ২০১৫ সালে। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। গ্ল্যামার দিয়ে সাধারণ মানুষের মনে চড়া দামে জায়গা কিনেছেন। পরীমনির জীবনের এই উত্থানের গল্পের গায়ে একবার চোখ বোলানো যাক—

May be an image of 1 person

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন

পরীমনির প্রকৃত নাম শামসুন্নাহার স্মৃতি। খুলনা বিভাগে সাতক্ষীরা জেলায় ১৯৯২ সালের ২৪ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ছোটবেলায় বাবা-মা মারা যান। বড় হন বরিশালে নানার বাড়িতে। সেখানেই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করেন।

ছোটবেলা থেকে নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন পরী। খুলনায় স্থানীয়ভাবে নির্মিত কিছু নাটকেও অভিনয় করেছেন তিনি। পরে নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন বুকে নিয়ে ২০১১ সালে ঢাকায় পা রাখেন। ঢাকায় এসেই বুলবুল একাডেমি অব ফাইন আর্টসে (বাফা) নাচ শিখতে ভর্তি হন।

May be a close-up of 1 person, flower, tree and outdoors

স্মৃতি থেকে পরীমনি

পরীমনি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নৃত্য করতেন। পরে মডেলিংয়ে আসেন। এরপর ছোটপর্দায় অভিষেক হয় তার। তিনি ‘সেকেন্ড ইনিংস’, ‘এক্সক্লুসিভ’, ‘এক্সট্রা ব্যাচেলর’, ‘নারী ও নবনীতা তোমার জন্য’—এই চারটি ধারাবাহিক নাটকে কাজ করেছেন। এরমধ্যে জাকারিয়া শৌখিন রচিত ‘নারী ও নবনীতা তোমার জন্য’ নাটকে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন পরীমনি। এতে চিত্রনায়ক আমিন খান, চিত্রনায়িকা পপি ও ঈশানাও অভিনয় করেছিলেন। প্রথম অভিনীত নাটকেই তিনি ইলিয়াস কাঞ্চন ও চম্পার সঙ্গে অভিনয় করেন।

রানা প্লাজা (Rana Plaza) - বাংলা মুভি ডেটাবেজ

শাহ আলম মন্ডল পরিচালিত ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ পরীমনির প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র। ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৫ সালে। তবে তিনি আলোচনায় আসেন নজরুল ইসলাম খান পরিচালিত ‘রানা প্লাজা’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে। এটি ছিল তার প্রথম অভিনীত চলচ্চিত্র। যদিও ছবিটি নিষেধাজ্ঞার কারণে এখনও আলোর মুখ দেখেনি। এই ছবির পরই পরীমনি একসঙ্গে ২৩টি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়ে আলোচনার জন্ম দেন। এখন পর্যন্ত তিনি ৩০টির বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। সবশেষ পরী অভিনীত তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘স্ফুলিঙ্গ’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। এছাড়া সম্প্রতি তিনি সঞ্জয় সমদ্দারের ‘বায়োপিক’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

তবে অপ্রিয় হলেও সত্য, আলোচিত নায়িকা হিসেবে পরীমনির চলচ্চিত্রগুলো সেভাবে নজর কাড়েনি দর্শকের। ক্যারিয়ারে ব্যবসাসফল সিনেমা নেই বললেই চলে।

May be an image of 1 person

একাধিক বিয়ে ও বিচ্ছেদ

হঠাৎ করে ২০১৬ সালের শুরুর দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় পরীমনির সঙ্গে দুজনের বিয়ের খবর। এমনকি বিয়ের ছবি, কাবিননামা ও তালাকনামার ছবিও প্রকাশ পায় ফেসবুকে। ২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি সকালে অনিক আব্রাহাম নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে ‘পরীমনি’র কিছু ছবি শেয়ার করা হয়। সেখানে অনিক দাবি করেছিলেন, পরীমনি তার বন্ধু ইসমাইলের স্ত্রী। তার কিছুদিন পরেই ফেসবুকে পাওয়া যায় পরীমনির কথিত বিয়ের কাবিননামা এবং নতুন কথিত বরের সঙ্গে কিছু ঘনিষ্ঠ ছবি।

এর কিছুদিন পর ফেসবুকে পাওয়া যায় পরীর আরও একজন কথিত স্বামীর সন্ধান। শাকিল রিয়াজ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে প্রকাশ করা হয়, পরীর নতুন বরের ছবি ও কাবিননামা। জানা গিয়েছিল, পরীমনির কথিত দ্বিতীয় স্বামীর নাম সৌরভ কবীর।

যদিও এসবকিছু অস্বীকার করেছিলেন পরীমনি। তখন তিনি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, “এটা ফেইক। বিয়ের আসরে বসে থাকলে সেটা বিয়ে কিনা যাচাই করা উচিৎ। আর ছবি থাকলেই তো স্বামী হয় না। ছবি তো হাজার জনের সঙ্গে আছে। তার মানে এই নয় যে সবাই আমার স্বামী।”

বিয়ের আগেই পরীমনির বিচ্ছেদ!

তবে বিনোদন সাংবাদিক তামিম হাসান ও পরীমনির প্রেমের খবর কারও অজানা ছিল না। দুই বছর প্রেমের পর তারা বাগদানও সেরে ফেলেছিলেন। নিচ্ছিলেন বিয়ের জন্য প্রস্তুতি। বিয়ের আগেই মধু চন্দ্রিমায় ঘুরেছেন দেশের বাইরে। ফেসবুকে সেই অবকাশ যাপনের ছবিও প্রকাশ করেছিলেন তারা। তারপর ২০১৯ সালে আনুষ্ঠানিক বিয়ের আগেই বিচ্ছেদ হয় তাদের। বাগদানের আঙটি খুলে ফেলেন পরী। দুজনের পথ দুদিকে বেঁকে যায়। যদিও বিচ্ছেদ হলেও এখনও তাদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক আছে বলে জানান পরী।

এক বছর পেরোতেই তিন টাকা দেনমোহরে নির্মাতা কামরুজ্জামান রনিকে বিয়ে করেন পরীমনি। ২০২০ সালের ৯ মার্চ দিবাগত রাতে অভিনয়শিল্পী ও পরিচালক হৃদি হকের অফিসে কাজি ডেকে বিয়ে করেন পরীমনি ও পরিচালক কামরুজ্জামান রনি।

বিয়ে করলেন পরীমণি

তখন বিয়ে নিয়ে পরী গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, “অনেক হিসাব–নিকাশ করে তো জীবনের পরিকল্পনা করাই যায়। কিন্তু জীবন চলে তার নিজস্ব পথে। জন্ম, মৃত্যু ও বিয়ে সবই আল্লাহর হাতে—এটা আমি খুবই মানি। আমার কাছে মানুষের প্রতি মানুষের বিশ্বাসও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এটার ওপর নির্ভর করে মানুষ জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যায়।”

কিন্তু তাদের সেই বিয়ে পাঁচ মাসও স্থায়ী হয়নি। রনির সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে গণমাধ্যমে কোনো বিবৃতিও দেননি পরী। তখন পরীমনির ঘনিষ্ঠ অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছিলেন, “পরীমনি আসলে হুজুগে বিয়েটা করেছেন। বিয়ের পর কয়েক দিন তাকে স্বামীর সঙ্গে দেখা গেছে। তারপর আর কোনো খবর নেই।”

এখন পরীমনি একা। নেই কোনো সম্পর্কে। তবে গণমাধ্যমের ধারণা, প্রকাশ না করলেও আবারও প্রেমে মজেছেন পরী।

May be an image of 1 person

ফোর্বসের তালিকায় পরীমনি

গত বছর এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকার তালিকা প্রকাশ করে আমেরিকার প্রখ্যাত বিজনেস ম্যাগাজিন ফোর্বস। সেখানে বাঘা বাঘা তারকার সঙ্গে জায়গা করে নেন বাংলাদেশের এই অভিনেত্রী। ওই তালিকায় আরও ছিলেন অমিতাভ বচ্চন, অক্ষয় কুমার, শাহরুখ খান, মাধুরী দীক্ষিতসহ বেশ কয়েকজন বলিউড তারকা। ডিজিটাল মাধ্যমে প্রতিনিয়ত ঝড় তোলা এশিয়া–প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের এ রকম ১০০ জন কণ্ঠশিল্পী, ব্যান্ডশিল্পী, চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন শিল্পীকে এ তালিকায় রাখা হয়েছিল।

May be an image of 1 person, skyscraper and sky

ভ্রমণপিপাসু পরী

সাতক্ষীরার নিভৃত পল্লীতে জন্ম নেওয়া পরীমনি এখন সময় পেলে ঘুরতে যান বিদেশে। অভিনয়ের হাঁপিয়ে উঠলে উড়াল দেন পছন্দের কোনো দেশে। এই যেমন গেল এপ্রিলে তিনি দুবাইয়ে অবকাশ যাপন করেছেন। কখনো মুখে আরবীয় স্কার্ফ বেঁধে ঈগল হাতে নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের চেনারূপে; কখনো স্বল্পবসনা হয়ে ঐতিহাসিক র্বুজ খলিফা টাওয়ারের সামনে। আবার কখনোবা ঈগলের মতো ডানা মেলে যেন উড়েছেন তপ্ত মরুভূমির উপর।

তবে এই দুবাই ভ্রমণ নিয়ে নানা নেতিবাচক মন্তব্যের শিকার হচ্ছেন তিনি। যদিও সেসব কিছু আমলে নিচ্ছেন না পরী। বরং তার মতে, “অন্যের ওপর লোকে তখনই জ্বলে, যখন কেউ নিজেকে নিয়ে সুখী থাকে না।”

May be an image of 1 person and standing

শেষের কথা

পরীমনিকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা যাই হোক। মেধা আর সৌন্দর্যের সমন্বয়ে নিজের চেষ্টায় ভাগ্যের উত্থান ঘটানো যায়—তারই বড় প্রমাণ হয়ে থাকবেন তিনি। জীবনে যারা বড় হতে চান তাদের আদর্শ হতে পারেন সাতক্ষীরা থেকে উঠে আসা এই মেয়েটি।