• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মে ১৬, ২০২১, ১২:৫৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৬, ২০২১, ০২:০৩ পিএম

ফের একসঙ্গে তাহসান-মিথিলা, দিলেন ইতিবাচক বার্তা

ফের একসঙ্গে তাহসান-মিথিলা, দিলেন ইতিবাচক বার্তা

বিচ্ছেদের পর দুজন একসঙ্গে ভক্তদের সামনে মুখোমুখি হননি তাহসান ও মিথিলা। এমনকি একসঙ্গে কাজ করেননি কোনো নাটকে। যদিও একমাত্র কন্যা আইরার কারণে পারিবারিকভাবে তাদের দেখা হয়। কথা হয়। তবে সেসব একান্তই ব্যক্তিগত।

কিন্তু এবার অনুরাগীদের চমকে দিয়ে ঈদের দ্বিতীয় দিন শনিবার তাদের একসঙ্গে অনুষ্ঠানে দেখা গেল। অনলাইনে যুক্ত ছিলেন তারা। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন নাভিদ মাহবুব। ইতিবাচকতা ছড়িয়ে দিতেই একসঙ্গে হাজির হয়েছিলেন তাহসান-মিথিলা।

সরাসরি অনুষ্ঠানে মিথিলা বলেন, “আমরা এখানে এসেছি ইতিবাচক বার্তা শেয়ার করতে। আমরা ভালো কথা বলার চেষ্টা করবো এবং ইতিবাচকতা ছড়ানোর চেষ্টা করবো। কারণ, সবাই মিলে আমাদের ভালো থাকতে হবে।”

সরাসরি অনুষ্ঠানে আসার আগে তাহসান ফেসবুকে একটি ‘সারপ্রাইজ’ স্ট্যাটাস পোস্ট করেন। সেটি প্রতিউত্তরে মিথিলাও পোস্ট করে জানান, তিনি সারপ্রাইজের অপেক্ষায় আছেন। মূলত তাদের এই পোস্ট ঘিরে শুরু হয় নানা জল্পনা-কল্পনা।

এ প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, “যখন আমি সারপ্রাইজের স্ট্যাটাসটি দিলাম এবং মিথিলা উত্তর দিল, তখন চারিদিক থেকে অনেক কমেন্ট আসলো। আমি ভাগ্যবান যে আমার পেজে অনেক ভালো কমেন্ট আসে। কিন্তু তার মাঝেও প্রতি স্ট্যাটাসেই ওকে নিয়ে কিছু নেতিবাচক কমেন্ট থাকবেই। কিছু মানুষ আছেন, যারা প্রতিনিয়ত নেতিবাচকতা ছড়াতে ভালোবাসেন।”

তিনি আরও বলেন, “পাঁচ বছর হয়ে গেছে ওর সাথে আমার বিচ্ছেদ হয়েছে। আমরা কাজ করছি না একসাথে সঙ্গত কারণে। কিন্তু এখনও প্রতিনিয়ত আমার পোস্টে তাকে কটাক্ষ করা হয়ে এবং তার পোস্টেও আমাকে নিয়ে কমেন্ট করা হয়। এই কাজগুলো কারা করেন এবং কেন করেন, তা নিয়ে আমরা কথা বলিনা বলে এগুলো বেড়ে যাচ্ছে। এমন একটা পর্যায়ে চলে গেছে যে চঞ্চল চৌধুরী মায়ের সঙ্গে ছবি দিয়েছেন, সেখানেও নেতিবাচকতার ছড়াছড়ি। এটা শুধু আমার, মিথিলার বা চঞ্চল চৌধুরীর বেলায় না, যেকোনো পেজেই কিছু মানুষ কটু কথা বলছে। এটা মানসিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে।”

তাহসান বলেন, “আমরা যারা পাবলিক ফিগার, তারা যদি এটা নিয়ে কথা না বলি তাহলে পরবর্তী প্রজন্ম বুঝবে না যে কাউকে কটু কথা বলা বা গালিগালাজ করার মাঝে কোনো বীরত্ব নেই। এতে অসভ্যতা প্রকাশ পায়। তার পারিবারিক শিক্ষা যে কতটা কদর্য তা প্রকাশ পায়। আমার মনে হয়েছে আমাদের এটা নিয়ে কথা বলার সুযোগ আছে। আমাদের মানুষ একসঙ্গে দেখার প্রত্যাশা করবে না, আমরা দুজন আজ লাইভে এসেছি বলেই কিন্তু অনেক মানুষ লাইভটি দেখবেন। আমরা দুজনে আলাদা হয়ে গেছি। কিন্তু আমরা দুজনেই সসম্মানে একে অপরের সাথে পাশাপাশি বসে কথা বলতে পারি। একে অপরকে কটু বাক্য না বলে, অপমান না করে শ্রদ্ধার সাথে কথা বলতে পারি। এটা থেকেই যেন পরবর্তী প্রজন্ম শিখতে পারে।”

তাহসান-মিথিলার দেখা হলো, কথা হলো

তাহসান ও মিথিলা দুজনেই জানিয়েছেন, প্রথমে এই শোতে একসঙ্গে অংশ নিতে চাননি তারা। কিন্তু পরে চিন্তা করেছেন, ইতিবাচক বার্তা ছড়িয়ে দেয়ার এটাই সুযোগ।

২০১৭ সালের অক্টোবরে প্রায় ১১ বছরের সংসার জীবনের ইতি টানেন তাহসান ও মিথিলা। এরপর ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ভারতের কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জীকে বিয়ে করেন মিথিলা। তবে তাহসান এখনো বিয়ে করেননি।