• ঢাকা
  • বুধবার, ০৪ আগস্ট, ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২১, ০১:৩৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১৪, ২০২১, ০৭:৩৮ এএম

পরীমণির পাশে থাকবে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি: জায়েদ খান

পরীমণির পাশে থাকবে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি: জায়েদ খান

আবাসন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনেছেন দেশের জনপ্রিয় পরীমণি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি খোলা চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে এর বিচার চান এই অভিনেত্রী। 

পরীমণির সঙ্গে ঘটে যাওয়া এই ভয়াবহ ঘটনায় বিস্মিত চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান জানিয়েছেন, পরীমণির এই বিপদের দিনে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি পাশে থাকবে। 

জাগরণ অনলাইনকে জায়েদ খান বলেন, “পরীমণির পাশে শিল্পী সমিতি আছে, থাকবে। কিছু গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয়েছে যে, পরীমণি শিল্পী সমিতির কাছে সাহায্য চেয়ে পাননি। আসলে এটা মিথ্যা খবর। বিষয়টি নিয়ে আমি মামলা করার কথা বলেছিলাম তাকে। আমরা এই বিষয়ে পরীর কাছে লিখিত অভিযোগ চেয়েছি। পুলিশের উর্ধ্বতন কতৃপক্ষ ঢাকার বাইরে রয়েছেন। যেকারণে তাদেরকে জানাতে পারিনি।”
 
পরীমণির বিষয়টি নিয়ে শিল্পী সমিতি মানববন্ধন করবে কি না—জানতে চাইলে তিনি বলেন, “পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার ঘটনায় মামলা হয়েছে। আইনের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। আমরা আশা করি পুলিশ তার গতিতে তদন্ত কাজ এগিয়ে নেবে। তবুও আমাদের পক্ষ থেকে পুলিশের উচ্চপার্যায়ে কথা বলব।”

এর আগে রোববার (১৩ জুন) রাত ৮টার দিকে ফেসবুকে নাম প্রকাশ না করে এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনেন পরীমণি। ওই রাতেই তিনি সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সামনে নির্যাতনের ঘটনার বর্ণনা দেন। 

পরীমনি বলেন, “বুধবার রাত পৌনে ১১টার দিকে তার এক বন্ধু (অমি) বাসায় আসেন। বাসা থেকে তাকে উত্তরার বোট ক্লাবে (ঢাকা বোট ক্লাব) নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন জিমি (ব্যক্তিগত রূপসজ্জাশিল্পী)। বোট ক্লাবে যাওয়ার পর সেখানে সাত-আটজনের একটা গ্রুপ ছিল। তাদের মুরব্বি ছিলেন নাসির উদ্দিন (নাসির ইউ মাহমুদ)। তিনি বোর্ড ক্লাবের প্রেসিডেন্ট হিসেবে পরিচয় দেন। পরীমণিকে চড় থাপ্পড় দেওয়া হয়েছে তার পরনের পোশাক মদ্যপ অবস্থায় টেনে ছেড়া হয়েছে। তার সঙ্গে থাকা জিমিকে গলায় একজনের শার্ট পেঁচিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।”

পরীমণি উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের আরও জানিয়েছেন, ওই ঘটনার পর রাজধানীর বনানী থানায় অভিযোগ জানাতে গেলেও তাকে সহযোগিতা করা হয়নি। এমনি বাংলাদেশ শিল্পী সমিতিতে অভিযোগ জানিয়েও ফল পাননি বলে অভিযোগ এই চিত্রনায়িকার।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর পুলিশের রূপনগর থানা থেকে পুলিশের কর্মকর্তারা তার বাসায় গিয়েছিলেন অভিযোগ রেকর্ড করার জন্য।

ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ আনার পর নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান পরীমণি। আর সেকারণে তার বনানীর বাসার সামনে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বনানী থানার একজন উপপরিদর্শকের (এসআই) নেতৃত্বে ৫ সদস্যের পুলিশ দল সোমবার সকাল থেকে নায়িকা পরীমনির বাসার সামনে অবস্থান করছে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন  বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আযম মিয়া।