• ঢাকা
  • বুধবার, ০৪ আগস্ট, ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ২২, ২০২১, ০১:১৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২২, ২০২১, ০৭:১৮ এএম

নচিকেতার খোঁচা

একমাত্র গানের অনুষ্ঠানেই করোনা ছড়ায়!

একমাত্র গানের অনুষ্ঠানেই করোনা ছড়ায়!
ফাইল ছবি।

ওপার বাংলার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নচিকেতা চক্রবর্তী সবসময়ই রাখঢাক ছাড়া কথা বলতে পছন্দ করেন। নিজের অনেক গানেও সমাজের অসঙ্গতির কথা তুলে ধরেছেন তিনি, সরাসরি আঘাত করেছেন রাষ্ট্র ক্ষমতাকে। এবার এই জীবনমুখী শিল্পী কথা বললেন করোনাভাইরাসের কারণে উপার্জন বন্ধ হয়ে যাওয়া শিল্পীদের আর্থিক দুরাবস্থা নিয়ে।

উত্তর কলকাতায় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার অনুষ্ঠানে নচিকেতা খোঁচা দেন এভাবে, ‘অবাধে মাস্কবিহীন উদ্দাম জনতা ভোটরঙ্গে নেচে উঠলে সেখানে করোনা ছড়ায় না। কিন্তু গানের অনুষ্ঠানে করোনা যেন ওঁত পেতে বসে আছে। সেখানে শিল্পী থেকে দর্শক-শ্রোতা সকলেরই ঘাড়ে থাবা বসাতে উদ্যত মহামারি।’

অনুষ্ঠানে সংস্থাটির পক্ষ থেকে ১১০ জন যন্ত্রশিল্পীর হাতে এক মাসের খাদ্য সামগ্রীও তুলে দিলেন নচিকেতা। তবে এই শিল্পীর মনে করেন যত দিন না পুরোদমে অনুষ্ঠআন শুরু হবে তত দিন শিল্পীদের এই দুর্দশা কাটবে না।

তার মতে, ‘সাময়িক সাহায্যে খুব বেশি দিন সংসার চালানো সম্ভব নয়। গোটা ভারতের লাখ লাখ শিল্পী এই সংকটের শিকার। শুধু গান নয়, অভিনয় থেকে শুরু করে সমস্ত শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেও চিত্রটা একই। বহু জুনিয়র আর্টিস্ট, মেক-আপ আর্টিস্ট, প্রোডাকশনের সঙ্গে যুক্ত থাকা ব্যক্তিও মহামারির ফলে ভীষণভাবে সমস্যায় পড়েছেন।’

নচিকেতা বলেন, 'আমাদের নিয়ে কেউ খুব একটা ভাবে না। অনুষ্ঠান কিছুতেই শুরু হচ্ছে না। ওখানে নাকি করোনা থাবা বসানোর জন্য আগ বাড়িয়ে বসে রয়েছে। অনুষ্ঠান হলেই সকলকে আক্রমণ করবে। একটা জিনিস বুঝতে হবে, যত দিন না অনুষ্ঠান শুরু হচ্ছে সঠিক সুরাহার পথ কিন্তু পাওয়া যাবে না।'

জাগরণ/এমএইচ

আরও পড়ুন