• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ১৬, ২০২১, ০১:১১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৬, ২০২১, ১২:১২ পিএম

ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট পেলেন হিরো আলম

ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট পেলেন হিরো আলম
হিরো আলম ● সংগৃহীত

ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ পেলেন হিরো আলম। সোশ্যাল মিডিয়ায় এ কথা নিজেই জানিয়েছেন তিনি।

হিরো আলম লিখেছেন, ‘সবাইকে শুভ সকাল। আজকের সকালটা খুব ভালো। আজ আমার পেজটা ভেরিফায়েড হয়েছে শুধু আপনাদের ভালোবাসার কারণে।’ অর্থাৎ এবার হিরো আলমের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের পাশে থাকবে ‘ব্লু টিক’।

ভুয়া প্রোফাইলের হাতছানি এড়িয়ে এবার সরাসরি ফ্যানরা চিনে নিতে পারবে তার আসল পেজ।

হিরো আলমের ইউটিউবে প্রকাশ ‘বাবু খাইছো’ গানের হাত ধরে। গানটি বিপুল জনপ্রিয় হয়। ঠাট্টা, সমালোচনা করলেও হিরো আলমকে এড়িয়ে যেতে পারেননি নেটিজেনরা। এরপর একাধিক গানের ভিডিও প্রকাশ করেছেন তিনি। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই নিজের চেহারা এবং গানের জন্য সমালোচিত হয়েছেন তিনি।

হিরো আলমের আক্ষেপ, ‘অনেকে তাকে বদনাম করার চেষ্টা করেন। মনে করেন তার সঙ্গে কাজ করলে মান-সম্মান কমে যাবে।’

নিজের নতুন ছবি শুরু করেছেন তিনি। কিন্তু লুকিয়ে চুরিয়ে চলছিল শুটিং-এর কাজ। কেন এই লুকোচুরি খেলা? হিরো বলছেন, তিনি কিছু ভালো কাজ করতে গেলেই মানুষ তাকে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করে। তার সব কাজে বাধা দিতে চান। আর তাই লোকজন যাতে তার কাজের কথা জানতে না পারে সেই জন্য ইউনিটে প্রত্যেককে বলা হয়েছে, ছবির কথা যেন কোনওভাবেই বাইরে না ফাঁস হয়।
 

হিরো আলমের ফেসবুক থেকে

হিরো আলম জানান, একটি মানবিক গল্প নিয়ে ছবিটি তৈরি করছেন তিনি। ছবির প্রযোজকও তিনি নিজেই। তবে বাজেট নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি।

আলম জানান, এই প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য করলেই ট্রোল হতে পারেন তিনি।

তার দাবি, ছবিতে তিনি ভালো অভিনয় করে মন জয় করতে চান দর্শকদের। যাতে কোনওভাবেই কেউ তাকে ট্রোল করতে না পারে।

ট্রোলারদের একহাত নেন অভিনেতা। বলেন, ‘হিরো আলম যাই করুক সেটা নিয়েই ট্রোল করতে হবে। শিক্ষিত কিছু মানুষ মূর্খের মতো ব্যবহার করেন। তাই লুকিয়ে শুটিং। না জানবে লোক, না থাকবে ট্রোলের ভয়’।

জাগরণ/এমএ