• ঢাকা
  • শনিবার, ২৮ মে, ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৫, ২০২২, ০২:১৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২৫, ২০২২, ০৮:১৮ এএম

প্রিয়াঙ্কার মা হওয়া নিয়ে যা বললেন তসলিমা

প্রিয়াঙ্কার মা হওয়া নিয়ে যা বললেন তসলিমা

বলিউডের বেশ জোরেশোরেই আওয়াজ ওঠে নিক জোনাস ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জন নিয়ে। কিন্তু সন্তান জন্মের মধ্য দিয়ে সেই গুঞ্জনের লাগাম টেনে দেন প্রিয়াঙ্কা। মা হওয়ার এমন খুশির খবর দিয়ে মুখ বন্ধ করেন বহু নিন্দুকের।

২১ জানুয়ারি মধ্যরাতে নিজের ইনস্টাগ্রামে মা হওয়ার বিষয়টি নিজেই জানিয়ে দেন এই অভিনেত্রী। তিনি জানান, সারোগেসির মাধ্যমে সন্তান নিয়েছেন তারা। তাই সবার দোয়াও চেয়েছেন এই তারকা দম্পতি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, প্রিয়াঙ্কা-জোনাসের মেয়ে হয়েছে। তবে মেয়ে এখন কোথায় আছে, সে কথা প্রিয়াঙ্কা জানাননি। যদিও বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার এক হাসপাতালে রয়েছে এই দম্পতির মেয়ে।

‘সারোগেসি’ সন্তান ধারণের এই নতুন পন্থাটি অবলম্বন করেছেন প্রিয়াঙ্কা। এই প্রক্রিয়ায় অন্য কোনো নারীর গর্ভ ভাড়া করেই মূলত মা হতে পারবেন যেকোনো নারী।

আর এই খবরে বেঁকে বসেছেন আলোচিত-সমালোচিত ও বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। শুধুমাত্র অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা নয়, সারোগেসি বিষয়টিকেই তিনি মানতে পারছেন না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরব থাকা লেখিকা সম্প্রতি এমনটাই জানালেন পোস্ট করে।

নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা তার পোস্টে লেখেন, ‘সারোগেসি বিজ্ঞানের চমৎকার একটা আবিষ্কার। কিন্তু সারোগেসি তত দিন টিকে থাকবে, যত দিন সমাজে দারিদ্র্য টিকে থাকবে। দারিদ্র্য নেই, তো সারোগেসিও নেই। দরিদ্র মেয়েদের জরায়ু টাকার বিনিময়ে নয় মাসের জন্য ভাড়া নেয় ধনীরা। ধনী মেয়েরা কিন্তু তাদের জরায়ু কাউকে ভাড়া দেবে না। কারণ গর্ভাবস্থায় জীবনের নানান ঝুঁকি থাকে, শিশুর জন্মের সময়ও থাকে ঝুঁকি। দরিদ্র না হলে কেউ এই ঝুঁকি নেয় না।’

পোস্টে তসলিমা নাসরিন আরও লেখেন, ‘গৃহহীন স্বজনহীন কোনো শিশুকে দত্তক নেওয়ার চেয়ে সারোগেসির মাধ্যমে ধনী এবং ব্যস্ত সেলিব্রিটিরা নিজের জিনসমেত একখানা রেডিমেড শিশু চায়। মানুষের ভেতরে এই সেলফিস জিনটি, এই নার্সিসিস্টিক ইগোটি বেশ আছে। এসবের ঊর্ধ্বে উঠতে কেউ যে পারে না তা নয়, অনেকে গর্ভবতী হতে; সন্তান জন্ম দিতে সক্ষম হলেও জন্ম না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।’

পোস্টে উল্লেখ করে তিনি একটি শর্ত জুড়ে দেন সারগোসি নিয়ে। তিনি লেখেন, ‘সারোগেসিকে তখন মেনে নেব যখন শুধু দরিদ্র নয়, ধনী মেয়েরাও সারোগেট মা হবে, টাকার বিনিময়ে নয়, সারোগেসিকে ভালোবেসে হবে। ঠিক যেমন বোরকাকে মেনে নেব, যখন পুরুষেরা ভালোবেসে বোরকা পরবে। মেয়েদের পতিতালয়কে মেনে নেব, যখন পুরুষরা নিজেদের পতিত-আলয় গড়ে তুলবে, মুখে মেকআপ করে রাস্তায় ত্রিভঙ্গ দাঁড়িয়ে কুড়ি-পঁচিশ টাকা পেতে নারী-খদ্দেরের জন্য অপেক্ষা করবে। তা না হলে সারোগেসি, বোরকা, পতিতাবৃত্তি রয়ে যাবে নারী এবং দরিদ্রকে এক্সপ্লয়টেশনের প্রতীক হিসেবে।’

উল্লেখ্য, প্রিয়াঙ্কা ও নিক জোনাস ২০১৮ সালে বিয়ে করেন। গত বছর বিয়ের তিন বছর উদযাপন করেন তারা। প্রণয় থেকে পরিণয়, প্রতি ক্ষেত্রেই ছিল সমালোচনার ঝড়। প্রিয়াঙ্কার চেয়ে বয়সে ছোট নিক। ফলে তাদের দাম্পত্য জীবন কতটা টিকবে তা নিয়ে সন্দেহ ছিল সব মহলেই। রাজস্থানের উমেদ ভবন রাজবাড়িতে ধুমধাম করে হিন্দুধর্ম মতে বিয়ে হয় তাদের। পরে আবার খ্রিস্টান মতে বিয়ে করেন গির্জায় গিয়ে।