• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ২৮, ২০১৯, ১২:২৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২৮, ২০১৯, ১২:৪৬ পিএম

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের দিকে একধাপ এগিয়ে আরেক বাংলাদেশি নারী

লন্ডন সংবাদদাতা
ব্রিটিশ পার্লামেন্টের দিকে একধাপ এগিয়ে আরেক বাংলাদেশি নারী
আফসানা বেগম -ছবি : জাগরণ

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আরেকজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নারী প্রতিনিধির সংখ্যা বাড়তে যাচ্ছে। পূর্ব লন্ডনের বাঙালি অধ্যুষিত ‘পপলার ও লাইমহাউজ’ সংসদীয় আসন থেকে এবার লেবার পার্টির মনোনয়ন পেয়েছেন আরেক ব্রিটিশ বাংলাদেশি নাগরিক আফসানা বেগম। প্রতিদ্বন্দ্বি কাউন্সিলার আমিনা আলীর চেয়ে ৫৮ ভোট বেশি পেয়ে তিনি চতুর্থ বাঙ্গালি হিসেবে হাউজ অব কমন্সের পথে একধাপ এগিয়ে গেলেন।

রোববার (২৭ অক্টোবর) রা‌তে লেবার পার্টির সদস্যদের সরাস‌রি ভো‌টে জি‌তে ম‌নোনয়ন নি‌শ্চিত ক‌রেন তিনি।

আসনটির বর্তমান এমপি জিম ফিটসপ্যাট্রিক। সম্প্রতি তিনি অবসরের ঘোষণা দেয়ায় লেবার লিডার জেরেমি করবিন আসনটিকে ‘নারী আসন’ হিসেবে ঘোষণা করেন।

লম্বা বাছাই প্রক্রিয়ার পর রোববার পপলার ও লাইমহাউজ আসনের লেবার পার্টির প্রার্থী নির্বাচনের চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে পপলার লাইমহাউজ সিএলপির সাবেক সেক্রেটারি ও বর্তমান ভাইস চেয়ার আফসানা বেগম প্রতিদ্বন্দ্বি কাউন্সিলার আমিনা আলীর চেয়ে ৫৮ ভোট বেশি পেয়ে হাউজ অব কমন্সের পথে একধাপ এগিয়ে গেলেন।

ওইদিন বিকাল ৪টায় সেন্ট পলস ওয়ের সেন্ট পলস চার্চে ৫শ লেবার পার্টির মেম্বার দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে প্রার্থী বাঁচাইয়ের জন্যে ভোট দিতে প্রবেশ করেন। দীর্ঘ দুই ঘণ্টা রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শেষে সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হয় নির্বাচনের মূল কার্যক্রম। পপলার লাইমহাউজ সিএলপির চেয়ার মাইক ডেভিসের তত্ত্বাবধানে গোপন ব্যালেটে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর রাত ৮টায় নির্বাচনের রিজাল্ট ঘোষণা করেন মাইক ডেভিস। প্রাপ্ত ফলাফল অনুয়ায়ী নির্বাচনে আফসানা বেগম ২৮১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়ে লেবার পার্টির প্রার্থিতা নিশ্চিত করেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বি কাউন্সিলার আমিনা আলী পান ২২৩ ভোট। ইউকেতে ব্রেক্সিট জটিলতার কারণে আসছে ডিসেম্বরেই জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা যায়। 

আফসান‌ার গ্রা‌মের বাড়ি সুনামগ‌ঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপ‌জেলায়। তার বাবা ম‌নির উদ্দীন টাওয়ার হ্যাম‌লেটস এলাকার একজন রাজনীতিবিদ ছিলেন।

বর্তমান যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে আইন প্রণেতা হিসেবে রয়েছেন ৩ ব্রিটিশ বাংলাদেশি নারী- রোশনারা আলী, টিউলিপ সিদ্দিক ও রূপা হক। পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনেও লেবার পার্টির এই তিন এমপির মনোনয়ন চূড়ান্ত। তাদের বাইরে আরও ৪ জন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নারী এমপি হওয়ার লড়াইয়ে নেমেছেন। তাদের মধ্যে কনজারভেটিভ পার্টি থেকে  ডা. আনোয়ারা আলী, লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি থেকে সিলেটের রাবিনা খান ও মৌলভীবাজারের বাবলিন মল্লিক এবং লেবার পার্টি থেকে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন আফসানা বেগম।

একেএস 
 

আরও পড়ুন