• ঢাকা
  • সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০১৯, ১০:১৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২, ২০১৯, ১০:৩৫ এএম

বোস্টনে প্রবাসীদের ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন

জাগরণ ডেস্ক
বোস্টনে প্রবাসীদের ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন
বোস্টনে প্রবাসীদের ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন

প্রতি বছরের ন্যায় এবারো যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালন করেছে।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে শনিবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব মেডফোর্ড (আইসিসিএম)-এর মিলনায়তনে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে শত শত মুসল্লি অংশ নেন।

নিউ ইংল্যান্ড ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন কমিটি ও ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব মেডফোর্ড (আইসিসিএম)-এর যৌথ উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

মাহফিল শুরুর আগে, প্রবাসে বেড়ে ওঠা শিশু-কিশোরদের জন্য হামদ ও নাত পরিবেশন ও প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া বিজয়ী প্রতিযোগিদের হাত পুরস্কার তুলে দেন মসজিদ কমিটির সদস্য কাজী নুরুজ্জামানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মাহফিলে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জীবন ও আদর্শ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার অব দিনাজপুরের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ড. সৈয়দ ইরশাদ আহমদ আল বুখারি, স্থানীয় মসজিদের ইমাম আহসান ওয়ারিস ও মাওলানা আইয়ুবুর রহমান।

আইসিসিএম ও মসজিদ কমিটির সদস্য সিরাজুম মনিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত মাহফিলে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন আইসিসিএম-এর সভাপতি মোর্শেদ হুমায়ুন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিনের আপ্রাণ চেষ্টার পর স্থানীয় প্রবাসীদের সহযোগিতায় গত বছর ১ দশমিক ৬ মিলিয়ন ডলারে নতুন মসজিদ কেনা সম্ভব হয়েছে। লাভ্যাংশ বিহীন বাকি অর্থ পরিশোধ করা অত্যন্ত জরুরি। গত বছর ফেসবুকে তহবিল সংগ্রহের মাধ্যেমে ১৭ হাজার ডলার সংগ্রহ করা সম্ভব হয়েছিল। এ বছর আগামী ৩ ডিসেম্বর মঙ্গলবার আবারো ফেসবুকে তহবিল সংগ্রহের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ওইদিন দেশ বিদেশের সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের উক্ত তহবিল সংগ্রহ অনুষ্ঠানে অনুদান প্রদানের আহ্বান জানান তিনি।

প্রতিবছর বোস্টনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের আন্তরিক সহযোগিতায় ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপনকে সফল করায় অন্যতম আয়োজক ও ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব মেডফোর্ড (আইসিসিএম)-এর পরিচালনা কমিটির অন্যতম সদস্য মোহাম্মদ ওসমান গণি উপস্থিত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জীবনী ব্যাখ্যা করে মাহফিলে উপস্থিত ইসলামিক চিন্তাবিদ ও বক্তাগণ বলেন, ১২ রবিউল আউয়াল পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)। মানবজাতির শিরোমণি মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জন্ম ও ওফাত দিবস। দিনটি মুসলিম উম্মাহর কাছে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নামে পরিচিত। পৃথিবীবাসীর জন্য আল্লাহর পক্ষ থেকে রহমতস্বরূপ সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ মহানবী (সা.) ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ১২ রবিউল আউয়াল আরবের মক্কা নগরীতে জন্মগ্রহণ করেন। আইয়ামে জাহেলিয়াতের সেই যুগে মানুষকে আলোর পথ দেখিয়ে ৬৩ বছর বয়সে একই দিনে তিনি ইন্তেকাল করেন। দিনটি মুসলিম উম্মাহ বিশেষ তাৎপর্যসহকারে পালন করে আসছে।  

একেএস                                                            
 

আরও পড়ুন