• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ৫, ২০১৯, ০৪:১১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৫, ২০১৯, ০৪:১২ পিএম

গুলশান বনানীর পুজা মণ্ডপ

ইলোরা অজন্তা গুহাচিত্রের আদলে নির্মিত

জাগরণ প্রতিবেদক
ইলোরা অজন্তা গুহাচিত্রের আদলে নির্মিত

 কন্যা এসেছে বাপের বাড়ি। ঘর ভরা সে আনন্দ ছড়িয়ে পরেছে অলিতে গলিতে। ঢাকের বাজনা জানান দিচ্ছে, মহাশক্তির আবির্ভাবে বধ হবে অসুর। আনন্দের হাজার পসরা ডানা মেলেছে গুলশান বনানী পূজা মণ্ডপে। ইলোরা অজন্তা গুহায় নির্মিত প্রাচীন দেবীর মূর্তি থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে সাজানো হয়েছে মন্ডপ। দেবী দূর্গার অলঙ্কার তৈরি করা হয়েছে মাটি দিয়ে। সে বার্তায় মাটির কাছাকাছি থেকে বিনয়ী মা দূর করবে সকল অশুভ। মন্দিরের ডিজাইন করা হয়েছে প্রাচীন ও আধুনিক মন্দিরের স্থাপনাশৈলী। সঙ্গে রয়েছে বিভিন্ন দেবতার প্রতিলিপি। ধূসর রঙে নানা রঙ সন্ধ্যা হলে নিয়ে আসে অন্য রকম আবহ। যেখান খুশি বাধভাঙ্গা।

দেবী দুর্গা এবার ঘোড়ায় চড়ে আসবেন বিদায়ও নেবেন ঘোড়ায় চড়েই। এই বিষয়টিকে মাথায় নিয়ে এবং সম্পূর্ণ নতুন থিমে দেশের সর্ববৃহৎ পূজা মণ্ডব বনানী পূজা মণ্ডপকে সাজানো হয়েছে। ১২ বছর পূর্তি উপলক্ষে এবারের শারদোৎসবে ১২টি প্রতীকী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে তারা। গুলশান-বনানী পূজা উদযাপন ফাউন্ডেশনের প্রধান সমন্বয়ক সুকুমার চৌধুরী জানান, কারিগরদের প্রায় তিন মাসের নিরলস পরিশ্রমের ফসল এবারের পূজা মণ্ডপ। যা ইতোমধ্যে দেশের সবচেয়ে নান্দনিক পূজা মণ্ডপে রূপ নিয়েছে। সংশ্লিষ্টএয়া আসা করছেন, আয়োজনের মধ্য দিয়ে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের যে স্বপ্ন বাংলাদেশের মানুষ দেখে তার প্রতিফলন ঘটবে।

শনিবার সম্প্রিতির বাংলাদেশ শিরোনামে আলোচনা সভায় আনুষ্ঠিত হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। সঞ্চালনা করবেন শ্রী শ্যামল দত্ত। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ ও সাংস্কৃতিক সম্প্রীতি শিরোনামে অআলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক। সোমবার বিজয়া দশমিতে শিশু-কিশোরদের জন্য চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত।

 

 

Islami Bank