• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মে, ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৮, ২০২১, ০১:১৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৮, ২০২১, ০১:১৬ পিএম

প্রতিদিন এ মৃত্যু নেওয়া যাচ্ছে না

প্রতিদিন এ মৃত্যু নেওয়া যাচ্ছে না

প্রতিদিন এ মৃত্যু নেওয়া যাচ্ছে না। লিখতেও চাই না। ...খুব কষ্ট হচ্ছে ।

মোহসিন ভাই । মোহসিন স্যার । এস এম মোহসিন ।

দিল্লিতে ছিলেন মোহসিন দাদা। ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামা’র ছাত্র। সবার প্রিয় মোহসিন দাদা। এমন কি আমাদের অধ্যক্ষ, পরিচালক ইব্রাহিম আল কাজীও ডাকতেন ‘মোহসিন দাদা’। স্কুলের হোস্টেল, ছাত্রছাত্রীদের ব্যক্তিগত সব সমস্যার সমাধান- মোহসিন দাদা। আমাদের বাংলাদেশী ছাত্রদের নির্ভরতার নাম মোহসিন ভাই ।

ভালই তো ছিলেন। যোগ ব্যায়ামের সর্বোচ্চ নম্বরধারী। ভীষণ শৃংখলা জীবনযাপনে । করোনা তাকেও রেহাই দিল না!

‘ তারিক, আমারে ডাইকো, অভিনয় করতে চাই’ !...

কম বয়সীরা ‘স্যার’ না বললে খুব রাগ করতেন।

খেতে খুব পছন্দ করতেন ...। এসব নিয়ে আড়ালে আমরা অনেকেই হাসাহাসি করেছি !

মাফ চাওয়াটা তো হল না ।

শেষ বিদায়টাও জানানো হলো না ।

অপরাধী হয়ে রইলাম !

যেখানেই থাকেন ভাল থাকবেন স্যার, মোহসিন দাদা,মোহসিন ভাই —

অভিনেতা এস এম মোহসিন ।