• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: জুন ২০, ২০১৯, ১০:২৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২০, ২০১৯, ১০:৩৫ এএম

ঢাকার দুই হাসপাতালে দুদক

মেশিন অকেজো করে চলছে জমজমাট কমিশনের ব্যবসা

জাগরণ প্রতিবেদক
মেশিন অকেজো করে চলছে জমজমাট কমিশনের ব্যবসা
সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল

দীর্ঘদিন ধরে ঢাকার দুই সরকারি হাসপাতালে ডায়াগনস্টিকের কয়েকটি মেশিন অকেজো। রোগীদের টেস্ট করতে হলে যেতে হয় বাইরে, যথা সময়ে মেলে না অন্যান্য সেবাও। এ সুবাদে হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে সম্পৃক্ত বাইরের ডায়াগনস্টিকে সেন্টারের দালাল চক্রের চলছে কমিশনের ব্যবসা। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পৃথক অভিযানে মিলেছে এমন সত্যতা। দুদকের উপপরিচালক প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গতকাল বুধবার (১৮ জুন) বিভিন্ন স্বাস্থ্য সেবা প্রাপ্তিতে অনিয়মের অভিযোগে সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল ও কামরাঙ্গীরচরে ৩১ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি হাসপাতালে এ অভিযান চালানো হয়।

দুদক অভিযোগ কেন্দ্রের তথ্য মতে, সরকারি কর্মচারীদের নানাবিধ চিকিৎসা সেবা প্রদানের প্রতিষ্ঠান রাজধানীর ফুলবাড়ীয়ায় অবস্থিত সরকারি কর্মচারী হাসপাতালের সকল সেবা যথা নিয়মে পাওয়া যায় না এবং ইকুইপমেন্টের স্বল্পতা দেখিয়ে কম টেস্ট করা হয়। রোগী বাইরে পাঠিয়ে দিয়ে দালাল চক্র কমিশনের ব্যবসা করছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশসহ ৫ সদস্যের একটি অ্যানফোর্সমেন্ট টিম অভিযান পরিচালনা করে। দুদক টিম হাসপাতালের পরিচালকের সঙ্গে অভিযোগের বিষয়ে কথা বলে। টিম জানতে পারে উক্ত হাসপাতালের দুটি ইকো মেশিনের একটি নষ্ট হয়ে গেছে এবং আরও কিছু সরঞ্জামাদিও অকেজো অবস্থায় রয়েছে। অবিলম্বে উল্লিখিত মেশিনসমূহ মেরামত করার জন্য পরামর্শ প্রদান করে দুদক টিম।

এদিকে কামরাঙ্গীরচরে ৩১ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি হাসপাতালের নানা অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক টিম। সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১ হতে পুলিশসহ ৫ সদস্যের একটি টিম বুধবার এ অভিযান পরিচালিত করে। টিম হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের সঙ্গে অভিযোগের বিষয়ে কথা বলে। তিনি জানান, লোকবল সংকটের কারণেই মূলত সেবা প্রার্থীদের যথাযথভাবে সেবা প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে না। 

শত প্রতিকূলতা সত্ত্বেও জনস্বার্থে সেবার মান প্রদানের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করে দুদক টিম। উপস্থিত জনসাধারণ দুদকের এ অভিযানে সন্তোষ প্রকাশ করে।


এইচ এম/ একেএস

Islami Bank