• ঢাকা
  • শনিবার, ০৮ আগস্ট, ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: জুলাই ৩১, ২০২০, ০১:৫১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ৩১, ২০২০, ০১:৫১ এএম

‘করোনার হাসপাতালে ৬০ ভাগ শয্যা খালি’

জাগরণ প্রতিবেদক
‘করোনার হাসপাতালে ৬০ ভাগ শয্যা খালি’
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক ● ফাইল ছবি

সরকারের সময়ে যথার্থ উদ্যোগ নেয়ার ফলেই দেশের করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) হাসপাতালগুলোতে এখন ৬০ ভাগ শয্যা খালি পড়ে আছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) সকালে সচিবালয়ের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সাথে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি সই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

মন্ত্রী বলেন, কোভিড ডেডিকেটেড অর্ধেক আইসিইউ বেডে কোনও রোগী নেই। শুরুতে পরিস্থিতি বুঝতে কিছুটা সময় লাগলেও এখন দেশের চিকিৎসা খাত কোভিড-১৯ চিকিৎসায় সঠিক অবস্থানেই রয়েছে।

হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা কম থাকা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সরকার দ্রুত কিছু উদ্যোগ নিতে সক্ষম হয়েছে। প্রথম দিকে কেবল ঢাকা মেডিকেল কলেজে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু ছিল। এখন জেলা শহরেও সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু করাসহ প্রায় ৭০টি হাসপাতাল সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আমাদের টেলি মেডিসিন ব্যবস্থার মাধ্যমে শত শত চিকিৎসক অনলাইনে কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

পাশাপাশি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী নতুন কিছু কার্যকরী চিকিৎসা সেবা কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালগুলোতে দেয়া হচ্ছে। এর ফলে, দেশে ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার কমতে শুরু করেছে।”

কোভিড পরীক্ষার সংখ্যা কমে যাচ্ছে এমন এক প্রশ্নের উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা করাতে মানুষের অনীহা, বন্যা দুর্যোগ এবং যত্রতত্র লক্ষণবিহীন লোকদের নমুনা পরীক্ষা না করানোর ফলে এ হার কিছুটা কমে থাকতে পারে। শিগগির ৩০ হাজার নার্স নিয়োগ করা হবে বলেও সভায় তিনি উল্লেখ করেন।

স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব আলী নূরের সভাপতিত্বে সভায় ৫টি দপ্তরের সাথে চুক্তি সই হয়। স্বাক্ষরকারী দফতরগুলো হচ্ছে- পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর, নিপোর্ট, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদফতর, স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর এবং স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদফতর।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাইডলাইন অনুযায়ী স্বচ্ছতা ও দক্ষতার সাথে কাজ করার জন্য অধিদফতর প্রধানদের প্রতি আহ্বান জানান।

কেএপি

আরও পড়ুন