• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১, ৯ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মে ১১, ২০২১, ১০:৫০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১১, ২০২১, ১১:০৯ এএম

কোন ব্লাড গ্রুপে করোনা ঝুঁকি বেশি?

কোন ব্লাড গ্রুপে করোনা ঝুঁকি বেশি?

শিশু থেকে বয়স্ক, নারী থেকে পুরুষ কেউ বাদ যাচ্ছে না করোনার ছোবল থেকে। একটু অবহেলাতেই আঁকড়ে ধরছে ভাইরাসটি। সতর্কতা আর সচেতনতাই একমাত্র উপায় এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের। তবে কিছু মানুষকে একটু বেশি সতর্ক থাকতে হবে। কেননা ব্লাড গ্রুপ অনুযায়ী এই ভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকিও বেড়ে যায় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

সম্প্রতি এক গবেষণা শেষে এমন তথ্য জানিয়েছে কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ (সিএসআইআর)।

গবেষণায় জানা যায়, যাদের রক্তের গ্রুপ AB বা B, অন্য ব্লাড গ্রুপের মানুষের থেকে তাদের করোনা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। আর যাদের রক্তের গ্রুপ O, তাদের সংক্রমণের সম্ভাবনা সবচেয়ে কম। তবে এই ব্লাড গ্রুপের কেউ সংক্রমিত হলে তাদের মধ্যে খুব অল্প মাত্রায় করোনার উপসর্গ দেখা যাবে।

এছাড়া নিরামিষভোজীদের করোনায় সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা কম। অন্যদিকে ঝুঁকিতে রয়েছেন আমিষভোজীরা। নিরামিষভোজীরা হাই ফাইবারযুক্ত খাবার খাওয়ায় তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। ফাইবারসমৃদ্ধ ডায়েট অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি হয়। এটি সংক্রমণের পরবর্তী সমস্যাগুলোর সঙ্গে লড়াই করে। এমনকি সংক্রমণ থেকেও এটি মানুষকে অনেকটাই সুরক্ষিত রাখে।

গবেষণায় ভারতের ১০ হাজার মানুষের করোনা পরীক্ষা করেন ১৪০ জন চিকিৎসক। তাদের নমুনা নিয়ে গবেষণা চালানো হয়। গবেষণার ফলাফল শেষে দেখা যায়, সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হয়েছে AB ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা। এরপরই ঝুঁকিতে রয়েছেন B ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা। সবচেয়ে কম সংক্রমণ O ব্লাড গ্রুপের মানুষের। 

কারণ হিসাবে গবেষকরা বলছেন, O ব্লাড গ্রুপের মানুষের মধ্যে B বা AB ব্লাড গ্রুপের থেকে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষের জিনগত বৈচিত্র্যের ওপরেও সংক্রমণের বিষয়টি নির্ভর করে। যেমন যাদের থ্যালাসেমিয়া থাকে, তাদের ম্যালেরিয়া কম হয়। ঠিক তেমনি একই পরিবারের সবার করোনা হলেও হয়তো একজন নেগেটিভ আছেন। এর কারণ জেনেটিক স্ট্রাকচার। 

গবেষণার এসব তথ্য নিয়ে আরও বিস্তারিত অনুসন্ধান প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই ঝুঁকি কম হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাইকেই সতর্ক থাকার পরামর্শ তাদের।