• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ১৭, ২০২১, ১১:০৫ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৭, ২০২১, ০৫:০৫ এএম

গবেষণা

ফ্লু টিকা নেয়া থাকলে করোনা ভয়াবহ হয় না

ফ্লু টিকা নেয়া থাকলে  করোনা ভয়াবহ হয় না
প্রতীকী ছবি

ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা নেয়া থাকলে করোনাভাইরাস ( কোভিড-১৯) এর ভয়াবহ হয়ে ওঠার আশঙ্কা থাকে না বললেই চলে। শুধু তা-ই নয়, কোভিডের পর নানা ধরনের জটিল হৃদরোগ, স্ট্রোক, সেপসিস ও ডিভিটি হওয়ার যে প্রবণতা রোগীদের মধ্যে লক্ষ করা যাচ্ছে, ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা নেয়া থাকলে সেসব রোগের আশঙ্কাও কমে যায় অনেকটাই।

যুক্তরাজ্যে প্রায় এক লাখ কোভিড রোগীর ওপর ট্রায়াল চালিয়ে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে করা একটি নজরকাড়া গবেষণা এই সুখবর দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই গবেষণার ফল সম্প্রতি ‘ইউরোপিয়ান সোসাইটি অব ক্লিনিক্যাল মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস’—এর অনলাইন সম্মেলনে পেশ করা হয়েছে।

গবেষকরা জানান, ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালিয়ে দেখা গেছে, আগে ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা নেয়া থাকলে কোভিড রোগীদের সংক্রমণ ভয়াবহ হয়ে উঠছে না। ফুসফুস অনেক বেশি নিরাপদ থাকছে। নিরাপদ থাকছে হৃদযন্ত্র, কিডনি ও যকৃত। ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা কোভিড রোগীদের হৃদযন্ত্রের নানা ধরনের জটিল অসুখে আক্রান্ত হতে দিচ্ছে না। কোভিড রোগীদের স্ট্রোক হওয়া, ডিপ ভেইন থ্রম্বোসিসের (ডিভিটি) মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমে যাচ্ছে আগে ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা নেয়া থাকলে।

হাসপাতালে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটেও নিয়ে যেতে হচ্ছে না কোভিড রোগীদের।

গবেষণাপত্রটি জানিয়েছে, ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা মানবশরীরের প্রতিরোধব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে তুলতে পারছে বলেই অ্যান্টিবডিগুলো তখন সার্স-কোভ-২ ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে পারছে। গবেষকরা এ-ও দেখেছেন, ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা আগে না নেয়া থাকলে কোভিডে আক্রান্ত হওয়া বা তার থেকে সেরে ওঠার পর রোগীদের শারীরিক অবস্থা যা হয়, ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা আগে নেয়া থাকলে তার চেয়ে অনেক বেশি সুস্থ থাকে কোভিড রোগীরা।

সেরে ওঠার পরেও তাদের নানা ধরনের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে যাচ্ছে।

মায়ামি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিক্যাল সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক দেবিন্দার সিংহ বলেছেন, ‘আমরা যা দেখেছি, তা থেকে এটুকু অন্তত নিশ্চিতভাবেই বলা যায়, ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা কোভিডের ভয়াবহ হয়ে ওঠা রুখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারছে।’ গবেষকরা অবশ্য এ-ও জানিয়েছেন, কোভিড থেকে নিরাপদ দূরত্বে থাকার জন্য কোভিড টিকাই সবচেয়ে বেশি প্রয়োজনীয়। আনন্দবাজার।

জাগরণ/এমএ