• ঢাকা
  • শনিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৩, ২০২১, ১১:৩৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৩, ২০২১, ০৫:৩৬ পিএম

শিশুদের পরীক্ষামূলক টিকা বৃহস্পতিবার

শিশুদের পরীক্ষামূলক টিকা বৃহস্পতিবার
ফাইল ফটো

দেশে ১২ থেকে ১৭ বছরের শিশুদের করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) টিকা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে আগেই। এবার শুরু হচ্ছে প্রয়োগ। সেই লক্ষ্য চলছে চূড়ান্ত প্রস্তুতি।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) ঢাকার একাধিক কেন্দ্রে স্বল্প পরিসরে পরীক্ষামূলকভাবে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের টিকা দেয়া হবে।

প্রথম দিনে ৫০ থেকে ১০০ শিশুকে টিকা দেয়ার পর তাদের পর্যবেক্ষণ করা হবে। এরপর আগামী সপ্তাহ থেকে ঢাকা ও অন্য সব নগরী এবং জেলা পর্যায়ে যাবে শিশুদের টিকা।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম জানান, মানিকগঞ্জের দুটি স্কুলের শিক্ষার্থীদের দেয়া হবে টিকা।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে মানিকগঞ্জের কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুটি স্কুলের শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া হবে। শিক্ষার্থীরা তাদের জন্ম নিবন্ধন দিয়ে নিবন্ধন করবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমেও নিবন্ধন করা যাবে।

দেশের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, এসব শিশুকে দেয়া হবে ফাইজারের টিকা। যাদের টিকা দেয়া হবে তাদের ১০ থেকে ১৪ দিন পর্যবেক্ষণ করা হবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন শিশুদের টিকা দিতে। সে অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় মানিকগঞ্জের কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজে টিকার টেস্ট রান শুরু হবে। এতে দুটি সরকারি স্কুলের ছেলেমেয়েদের বেছে নেয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্যের মহাপরিচালক আরও বলেন, ‘টেকনিক্যাল কারণে টিকা দেয়ার স্থান হিসেবে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা মানিকগঞ্জকে বাছাই করা হয়েছে।’

সরকারের হাতে এখন ৬০ লাখ ডোজ ফাইজারের টিকা রয়েছে, এ থেকে ৩০ লাখ ডোজ দেয়া হবে। বাকি ৩০ লাখ ডোজ রেখে দেয়া হবে দ্বিতীয় ডোজ দেয়ার জন্য।

বাংলাদেশে এ পর্যন্ত জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেয়া হয়েছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড, রাশিয়ার উৎপাদিত স্পুটনিক-ভি, চীনের সিনোফার্ম, ফাইজার ও মডার্নার টিকা।

জাগরণ/এমএ