• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৫, ২০২২, ০১:১৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৫, ২০২২, ০১:১৯ এএম

ফাইজারের আরও ২৩ লাখ টিকা দেশে পৌঁছেছে

ফাইজারের আরও ২৩ লাখ টিকা দেশে পৌঁছেছে
সংগৃহীত ছবি

কোভ্যাক্সের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও ২৩ লাখ ডোজ ফাইজারের টিকা দেশে পৌঁছেছে। ফলে কয়েকধাপে এখনো পর্যন্ত ২ কোটি ৫৫ লাখ ৯ হাজার ফাইজারের টিকা পেলো বাংলাদেশ।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে টিকা দেশে এসে পৌঁছায় বলে জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের ইপিআই বিভাগের পরিচালক ডা শামসুল হক।

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে বর্তমানে সারা দেশে স্কুল শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেয়া হচ্ছে। সাধারণ মানুষও পাচ্ছে ফাইজারের টিকা। তবে বুস্টার ডোজ হিসেবে ফাইজারের টিকা দেওয়া বন্ধ করা হয়েছে। এখন বুস্টার ডোজ হিসেবে দেয়া হচ্ছে মডার্না।

বর্তমানে ফাইজারের ২৯ লাখ ২৬ হাজার ৮৭২ ডোজ টিকা মজুদ আছে। দেশে টিকার কোনও ঘাটতি নেই বলেও জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

কোভ্যাক্স প্ল্যাটফর্মের আওতায় বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে টিকা পায় আফ্রিকার দেশ ঘানা। ২০২১ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি দেশটির রাজধানী আক্রায় পৌঁছায় অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত টিকার ৬ লাখ ডোজ।

মূলত মহামারির তীব্রতা কমিয়ে এনে দেশের মোট জনসংখ্যার অন্তত ২০ শতাংশকে টিকার আওতায় আনতে কোভ্যাক্স কাজ করছে। কোভ্যাক্সের প্রতিষ্ঠাতারা আগেভাগেই পরিকল্পনা শুরু করেছিলেন। ২০০৯ সালে যখন ‘সোয়াইন ফ্লু’ ছড়িয়ে পড়ে তখন বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন পৌঁছানো বেশ কঠিন হয়েছিল। সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি যেন না হয় সেজন্য সংকল্পবদ্ধ ছিলেন কোভ্যাক্সের প্রতিষ্ঠাতারা। তারা বেশ দ্রুততার সঙ্গে অনেক দেশকে এর সঙ্গে যুক্ত করতে পেরেছেন।

জাগরণ/এসএসকে/এমএ