• ঢাকা
  • শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০১৯, ০৯:৩৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২০, ২০১৯, ১১:৩৬ এএম

ব্রেক্সিট পেছাতে ইইউকে চিঠি, স্বাক্ষর করেননি বরিস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ব্রেক্সিট পেছাতে ইইউকে চিঠি, স্বাক্ষর করেননি বরিস
বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

ব্রিটিশ আইনপ্রণেতাদের ভোটে ফের শনিবার (১৯ অক্টোবর) পিছিয়ে পরেছে ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের পদক্ষেপ। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো ব্রেক্সিট পেছানোর জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নকে (ইইউ) চিঠি পাঠিয়েছে বৃটিশ সরকার। কিন্তু তাতে স্বাক্ষর করেননি প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

রোববার (২০ অক্টোবর) বার্তা সংস্থা রয়টার্স প্রকাশিত এক সংবাদে জানা যায়, শনিবার হাউস অব কমন্সে ৩২২-৩০৬ ভোটে হেরে যায় বরিসের নেতৃত্বাধীন ব্রেক্সিটপন্থীরা। শর্ত অনুসারে তাই নির্ধারিত ৩১ অক্টোবর তারিখে ব্রেক্সিট চুক্তি সম্পাদন না করে বর্ধিত সময় যোগ করার জন্য ইইউকে অনুরোধ পত্র পাঠানো হয়। তবে তাতে স্বাক্ষর করেননি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

সংবাদের তথ্য মতে, এই ইস্যুতে ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধান ডোনাল্ড টাস্ক বরাবর তিনটি চিঠির একটি কম্পাইল প্রেরণ করা হয়। এতে ব্রেক্সিট পেছানোর জন্য স্বাক্ষরহীন একটি আবেদনপত্র, ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন সংক্রান্ত নীতিমালার একটি কপি এবং চুক্তি বাস্তবয়ন পেছানোর ব্যাপারে নিজের অনিচ্ছাপত্র।

এ প্রসঙ্গে বরিস বলেন, ক্ষমতায় আসার পর গত ৮৯ দিন যাবত তিনি প্রত্যেককেই বোঝানোর চেষ্টা করেছেন যে, ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন যত দ্রুত করা যায় ততই মঙ্গল। কিন্তু তার কথার বিপক্ষে আইনপ্রণেতারা কেন অবস্থান নিচ্ছেন সেটি বিস্ময়কর। এছাড়া তিনি ব্রেক্সিট ইস্যুটির  রাজনৈতিক মেরুকরণ সৃষ্টি না করারও অনুরোধ জানান। হাউজ অব কমন্সের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এসব তথ্যই প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এর আগে, শনিবার হাউজের আইনপ্রণেতাদের ভোটাভুটিতে ৩২২-৩০৬ ভোটে হেরে ফের হোঁচট খায় ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন।

এসকে/একেএস

আরও পড়ুন