• ঢাকা
  • বুধবার, ০৮ এপ্রিল, ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:০১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:০১ পিএম

জার্মানির দুটি শিশা বারে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
জার্মানির দুটি শিশা বারে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৮
প্রথম বারটির পর হামলাকারীরা এই অ্যারেনা বার অ্যান্ড ক্যাফেতে গিয়ে হামলা চালায়- বিবিসি

জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলীয় হ্যানাউ শহরে বন্দুকধারীদের এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষনের ঘটনায় ৮ জন নিহত হয়েছে। দুটি ঘটনাই ঘটেছে একই শহরের পৃথক দুটি শিশা বারে। তবে এদের মাঝে নিশ্চিত যোগসূত্র রয়েছে বলে দাবি জার্মান পুলিশের।

স্থানীয় সময় বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাত দশটা নাগাদ বন্দুকধারীদের এই নির্বিচার হামলা শুরু হয়। এ ঘটনায় আরো ৫ জন আহত হয়েছে। যযে দুটি স্থানে হামলা হয়েছে, তার মধ্যে একটি ছিল শহরের বেশ সুপরিচিত অ্যারেনা বার অ্যান্ড ক্যাফে।

জার্মান পুলিশের বরাত দিয়ে প্রকাশিত সংবাদে বার্তা সংস্থা বিবিসি জানায়, এই ঘটনার পর পর সন্দেহভাজন হামলাকারীরা দ্রুত সেস্থান থেকে পালিয়ে গেছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশি ব্যারিকেড স্থাপনের মাধ্যমে পুরো এলাকা অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে, চলানো হচ্ছে তল্লাশি।

বিবিসি আরও জানায়, প্রথম ঘটনাটি ঘটে শহরের কেন্দ্রস্থলের একটি বারে। আর দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে শহরতলীতে। দুটি এলাকাতেই পুলিশের হেলিকপ্টার টহল দিচ্ছে এখন। দুটি হামলার জন্যই একই হামলাকারীদের সন্দেহ করা হচ্ছে।

প্রথম বারটিতে গুলি চালিয়ে ৩ জনকে হত্যা করার পর হামলাকারীরা অ্যারেনা বার অ্যান্ড ক্যাফেতে গিয়ে হামলা চালায়। এতে আরো ৫ জনকে হত্যা করাআ হয় বলে জানিয়েছে দেশটির একটি আঞ্চলিক সম্প্রচার সংস্থা। সিসিটিভি ফুটেজ অনুসারে এসব হামলার পর একটি কালো রঙের গাড়িকে ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে দেখা গেছে। পুলিশের ধারণা উভয় স্থানে এই একই গাড়ি ঘটনার সময় উপস্থিত ছিল। 

দুটি হামলার জন্যই একই হামলাকারীদের সন্দেহ করা হচ্ছে। তবে কেন এই হামলা বা কারা এই হামলাকারী সে বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

হেসেন অঙ্গরাজ্যের একটি শহর এই হ্যানাউ। শহরটি ফ্র্যাঙ্কফুর্টের পূর্ব দিকে ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এর মাত্র চারদিন আগে বার্লিনে একটি তুর্কি কমেডি শোয়ের ভেন্যুর কাছে আরেকটি হামলার ঘটনা ঘটেছিল। বন্দুকধারীদের ওই হামলাতে একজনের মৃত্যুও হয়।

লাগাতারা এমন হামলার ঘটনাগুলোর মাঝে বিশেষ যোগসূত্র থাকতে পারে এবং তা কোনো নির্দিষ্ট চক্রের দ্বারা পরিচালিত হতে পারে বলে ধারণা করছে জার্মান প্রশাসন।

এসকে