• ঢাকা
  • রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০, ০৮:৫২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০, ০৮:৫২ পিএম

অমিত শাহকে সভা করার জন্য অনুমতি দিলেন মমতা

দীপঙ্কর দাশগুপ্ত, কলকাতা থেকে
অমিত শাহকে সভা করার জন্য অনুমতি দিলেন মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অমিত শাহ ● কলকাতা প্রতিনিধি

পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ঠিক আগে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে দূরত্ব কমিয়ে ফেলেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। এবার সেই রাস্তা ধরে এ রাজ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপির অন্যতম শীর্ষ নেতা অমিত শাহকে কলকাতায় সভা করারও অনুমতি দিয়ে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। অথচ কয়েক মাস আগেই লোকসভা নির্বাচনের সময় অমিত শাহের নাম শুনলেই তেলেবেগুনে জ্বলে উঠতেন মমতা। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয়েছিল যে লোকসভা ভোটের আগে একাধিকবার অমিত শাহের হেলিকপ্টারই নামতে দেয়নি মমতার দল তৃণমূল।

১ মার্চ (রোববার) কলকাতায় সভা করবেন অমিত শাহ। তবে অনুমতি নিয়ে গোলমাল করলে বিজেপি বলেছিল, তারা আদালতের দ্বারস্থ হবে। তবে সেই প্রয়োজন আর হচ্ছে না। তার কারণ অনুমতি মঞ্জুর করেছে কলকাতা পুলিশ। ২০ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) বিজেপি’র তরফে চিঠি লিখে শহীদ মিনারে নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে সভার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। এর আগে ইস্টার্ন কমান্ডের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল যেহেতু জায়গাটি তাদের আওতায় আসে। ইস্টার্ন কমান্ড অনুমতি দিলে কলকাতা পুলিশের তরেফ বিজেপির পরিচালনা কমিটির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

যদিও কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী যারা অনুষ্ঠান পরিচালনা করবেন তারা মাইক্রোফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের যাতে কোনও রকম অসুবিধে না হয়, সেজন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বিজেপির নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার এ প্রসঙ্গে বলেছেন, কলকাতা পুলিশ সভা করার অনুমতি দিয়েছে। পরীক্ষার্থীদের কোনও অসুবিধা হবে না। কারণ শহীদ মিনার এলাকাটি জনবসতি থেকে অনেকটা দূরে। আদালতের নির্দেশ মেনেই আমরা শান্তিপূর্ণভাবে সভা করব।

পূর্ব-পরিকল্পনা অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির তরফে নাগরিকত্ব আইন আনার জন্য অমিত শাহকে সম্বর্ধনা দেয়া হবে। নাগরিকত্ব আইন পাস হওয়ার পর এটি তার দ্বিতীয় সফর হতে চলেছে। সিএএ-র সমর্থনে এর আগে গত বছরের ১ অক্টোবর নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে সভা করেছিলেন অমিত শাহ।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে লাগাতার আন্দোলন-বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি প্রায় প্রতিদিনই বিক্ষোভ দেখিয়ে চলেছে বামপন্থীরা এবং কংগ্রেস। লাগাতার এই আন্দোলনে কোণঠাসা বিজেপি। এই অবস্থায় কলকাতায় ফের আসছেন তিনি। তবে এবার তার পাখির চোখ ‘পৌর নির্বাচন’ তা বলাই বাহুল্য।

ডিডিজি/এসএমএম