• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০ মে, ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৩০, ২০২০, ০৮:৪৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৩০, ২০২০, ০৮:৪৭ পিএম

লকডাউন অমান্য

ভারতের রাস্তায় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ

আন্তর্জতিক ডেস্ক
ভারতের রাস্তায় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ

লকডাউন উপেক্ষা করে রাস্তায় বের হওয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে ভারতের কর্মহীন পরিযায়ী শ্রমিকরা। গুজরাটে বিক্ষুব্ধ এই শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস ছুড়েছে দেশটির পুলিশ।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনের ঘোষণা দেওয়ার পর নিম্নশ্রেণির লাখো মানুষ কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে।

দিল্লি এবং মুম্বাইয়ের মতো শহরগুলোর গরিব পরিযায়ী শ্রমিকরা মানবিক সঙ্কটে পড়েছেন। কর্মহীন হয়ে পড়ায় তারা পায়ে হেঁটে শত শত মাইল দূরের গ্রামে ফেরার চেষ্টা করছেন।

অনেকেই ছোট শিশু ও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে দিনের পর দিন হেঁটে গ্রামে ফিরছেন। ঘরমুখো এসব মানুষ খালি পেটেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা হাঁটছেন।

রবিবার ভারতের পঞ্চিমাঞ্চলীয় গুজরাট রাজ্যের সুরাটে প্রায় ৫০০ শ্রমিকের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। শ্রমিকদেরকে দেশের বিভিন্ন স্থানে নিজ বাড়িতে ফিরতে পুলিশ বাধা দেওয়াতেই এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সুরাটের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার বিধি চৌধারি বলেন, “পুলিশ তাদেরকে বোঝানোর চেষ্টা করেছে যে, বাস এবং ট্রেন চালু না থাকায় ঘরে ফেরা যাবে না। কিন্তু শ্রমিকরা সে কথায় কান না দিয়ে পুলিশের ওপর পাথর ছুড়তে শুরু করে।”

তিনি জানান, এই শ্রমিকরা সুরাটের পোশাক কারখানাগুলোতে কাজ করতেন। তাদেরকে টিয়ারগ্যাস ছুড়ে হটিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে সোমবার লকডাউনের নির্দেশ উপেক্ষা করায় ৯৩ শ্রমিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ভারতে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭১ জনে। আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৯ জন।

যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি এবং চীনের তুলনায় বিশাল জনগোষ্ঠীর দেশ ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কম হলেও স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ব্যাপক হারে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়া কয়েক সপ্তাহের ব্যাপার মাত্র।এ সংক্রমণ শুরু হলে ভারতের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা বিপর্যয়ের মুখে পড়তে পারে।

এসকে