• ঢাকা
  • বুধবার, ০৩ জুন, ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: এপ্রিল ২, ২০২০, ০৯:০২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২, ২০২০, ০৯:০৩ পিএম

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে তাবলিগে ৪৯৩ জন বাংলাদেশী

জাগরণ ডেস্ক
ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে তাবলিগে ৪৯৩ জন বাংলাদেশী
নিজামউদ্দিন মারকাজ ● বাসস

নয়াদিল্লির নিজামুদ্দিন এলাকায় অবস্থিত তাবলিগ জামায়াতের সদর দফতর থেকে সারা ভারতে ছড়িয়ে পড়া সব বিদেশি তাবলিগ জামায়াতের দলকে তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

সারাদেশে কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে জমায়েত নিষিদ্ধ থাকা স্বত্বেও তাবলিগের দলগুলো সম্প্রতি সামাজিক দূরত্বের সীমা ‘লঙ্ঘন’ করে সেখানে জমায়েত করেছিল। পরে দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজে অংশগ্রহণকারীদের কোভিড-১৯ পরীক্ষায় বেশিরভাগেরই ফলাফল পজেটিভ হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বুধবার (১ এপ্রিল) দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, বিভিন্ন রাজ্যে তাবলিগ জামায়াতের দলে বাংলাদেশের ৪৯৩ জনসহ ৭০টি দেশের ২ হাজার বিদেশি রয়েছে, যারা কোভিড-১৯ এর সম্ভাব্য বাহক।

মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুসারে, তাবলিগ জামায়তের এইসব দল, যেগুলো এখন দেশের বিভিন্ন রাজ্যে সফর করছে তাদের মধ্যে ইন্দোনেশিয়ার ৪৭২, মালয়েশিয়ার ১৫০ এবং থাইল্যান্ডের ১৪২ জন রয়েছে।

মন্ত্রণালয় অবশ্য তাবলিগের দলে অংশ নেয়া প্রত্যেক বিদেশিকে অবশ্যই তার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করাতে এবং কোয়ারেন্টাইন অথবা প্রয়োজনে তাদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

বুধবার (১ এপ্রিল) এখানে মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানান হয়, যদি এই বিদেশি কোভিড-১৯ মুক্ত বলে প্রমাণিত হয়, তবে তাকে অবিলম্বে প্রথম সুযোগেই বিমানযোগে দেশে পাঠিয়ে দেয়া উচিৎ।

সূত্র জানায়, নিজামউদ্দিনের সমাবেশে অংশ নেয়াদের সংস্পর্শে আসা ৮ হাজারের ও বেশি লোকের সন্ধান ও পরিচয় পেতে বেশ কয়েকটি রাজ্য সরকার ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে।

নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশ হাই কমিশনের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ভ্রমণে আসা বাংলাদেশী তাবলিগে জামায়াতের সদস্যদের সম্পর্কে তাদের কাছে কোনও তথ্য নেই।

এই কর্মকর্তা বলেন, ভারতের স্বরাষ্ট্র কিংবা পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় বাংলাদেশীদের কোনও তালিকা এই মিশনে দেয়নি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, দিল্লির নিজামুদ্দিনের জমায়েতের স্থল থেকে পুলিশ ১২শ’র বেশি লোককে যখন সরিয়ে দেয়, তখন সেখানে ১৯ থেকে ২০ জন বাংলাদেশী ছিলেন।
কিন্তু ওই কর্মকর্তা নিজামুদ্দিনের জমায়েতে থাকা ১৯ থেকে ২০ বাংলাদেশীর ব্যাপারে বিস্তারিত জানাতে পারেননি।

গত কয়েক দিন ধরে মৃত্যু হার বৃদ্ধির পাশাপাশি ভারতে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ বাড়ছে।
ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুসারে, দেশটিতে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০ জনে। গত ১২ ঘণ্টার মধ্যে দেশে ১৩১টি নতুন সংক্রমণসহ আক্রান্তের সংখ্যা ১,৯৬৫ জন। বাসস।

এসএমএম