• ঢাকা
  • বুধবার, ০৫ আগস্ট, ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: জুন ১৮, ২০২০, ১১:৪৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১৮, ২০২০, ১১:৪৩ এএম

আলোচনা ব্যর্থ, যেকোনো পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত ভারতীয় সেনাদল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আলোচনা ব্যর্থ, যেকোনো পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত ভারতীয় সেনাদল

ভারত-চীন প্রথম বৈঠকে পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থ। ধারনা করা হচ্ছে আবার আলোচনা হবে। তবে এর মধ্যেই বিমান, নৌ ও স্থল বাহিনীকে সবরকম পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকতে বললো ভারত।
সেনা সূত্রের উদ্বৃতি দিয়ে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা ডয়েচে ভেলে জানায়, ভারত এবং চীনের প্রতিটি সীমান্তেই অতিরিক্ত বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। নিয়ন্ত্রণরেখার খুব কাছে আরও বেশি সেনা নিয়োগ করা হয়েছে। সকলকেই অতি সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।
শুধু তাই নয়, সূত্র জানাচ্ছে, বায়ুসেনাও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সীমান্তের কাছাকাছি নিয়ে গিয়েছে। যাতে যে কোনও প্রয়োজনে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া যায়। অন্য দিকে ভারতের নৌসেনা প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলে টহল বাড়িয়েছে। তারাও যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে।
সোমবার রাতে লাদাখের ঘটনার পরে ভারত বা চীন কোনও দেশই সরাসরি যুদ্ধের কথা বলেনি। কিন্তু দুই দেশের বিবৃতিতেই উত্তেজনা পারদ যথেষ্ট চড়া। তারই মধ্যে বুধবার লাদাখে ভারত এবং চীন সেনার ফ্ল্যাগ বৈঠক ভেস্তে গিয়েছে। আজ, বৃহস্পতিবার ফের মেজর জেনারেল স্তরের বৈঠক হওয়ার কথা পেট্রোলিং পয়েন্ট ১৪ তে। এখানেই সোমবার রাতে প্রায় আট ঘণ্টা ধরে ভারত এবং চীনের সৈন্য সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে। যার জেরে ভারতের অন্তত ২০ জন সেনা নিহত হয়েছেন। তার মধ্যে একজন অফিসার। চীনেরও বেশ কয়েক জন সেনা নিহত হয়েছেন বলে সূত্রের খবর। যদিও সরকারি ভাবে চীন এখনও কিছু জানায়নি।

এসকে