• ঢাকা
  • শনিবার, ০৮ আগস্ট, ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: আগস্ট ১, ২০২০, ০৬:৩৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ১, ২০২০, ০৬:৩৮ এএম

পবিত্র হজে প্রথম দায়িত্ব পেল নারী পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পবিত্র হজে প্রথম দায়িত্ব পেল নারী পুলিশ

সৌদি আরবের মক্কায় পবিত্র হজে নিরাপত্তা রক্ষায় প্রথমবারের মতো দেশটির নারী পুলিশ সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। গত বছর দেশটির সরকার পুরুষদের মতো দেশটির সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য নিরাপত্তাবাহিনীতে নারীদের নিয়োগ এবং মুসলিমদের পবিত্র উৎসব হজের নিরাপত্তায় নারীরা নিয়োজিত হতে পারবেন বলে জানানো হয়। 

এ বছর করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে কঠোর স্বাস্থ্য-সুরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সৌদি সরকার। এবারের হজযাত্রীরা ভিন্ন এক বাস্তবতায় পবিত্র হজ পালন করছেন।

দেশটির পুলিশ সার্ভিস ট্রেইনিং থেকে প্রথম ব্যাচে যেসব নারী গ্রাজুয়েট নিয়োগ পেয়েছেন তাদের একজন আফনান আবু হুসেইন। সৌদি টেলিভিশন চ্যানেল আল-আখবারিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এটি আমাদের গর্ব এবং আনন্দের উৎস। অন্যান্য সময়ের তুলনায় হজ আমাদের জন্য খুবই ব্যস্ত একটি মৌসুম।

মক্কার পবিত্র গ্রান্ড মসজিদ থেকে আরাফাতের ময়দানের উদ্দেশে হজ যাত্রীদের যাত্রা শুরুর মাধ্যমে হজের মূল কার্যক্রম বুধবার থেকে শুরু হয়েছে। হজ যাত্রীদের সুরক্ষায় ব্যাপক স্বাস্থ্য-ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।
দেশটির হজ ও ওমরাহ কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক সারি আসিরি বলেছেন, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হজযাত্রীদের প্রত্যেক দলের জন্য এক নেতা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। তারা হজযাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত এবং চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে কাজ করবেন।

তিনি বলেন, এছাড়াও প্রত্যেক দলে একজন করে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রয়েছেন; যারা হজযাত্রীদের শারীরিক অবস্থা নজরদারির পাশাপাশি প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যসেবা দেবেন।

মক্কায় পৌঁছানোর আগে হজযাত্রীদের সুস্থতা নিশ্চিত করতে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা কঠোর বাছাই প্রক্রিয়া অনুসরণ করেছিলেন বলে জানান তিনি। আসিরি বলেন, আমরা প্রত্যেক হজযাত্রীর বাড়ি পরিদর্শন এবং তাদের সব ধরনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছি। মক্কায় হোটেলে নিরাপদে পৌঁছানোর আগে পর্যন্ত প্রত্যেকদিন আমরা তাদের পর্যবেক্ষণ করেছি।
হজযাত্রীদের সেবায় নিয়োজিত সব কর্মীকেও স্বাস্থ্য পরীক্ষার মধ্য দিয়ে নির্বাচিত হতে হয়েছে। পরীক্ষায় কোভিড-১৯ মুক্ত নিশ্চিত হওয়ার পর দায়িত্ব পালনের সায় পান তারা। 

প্রত্যেক বছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রায় ২৫ লাখ মুসলিম পবিত্র হজ পালন করলেও চলতি বছর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে হজযাত্রীর সংখ্যা মাত্র এক হাজারে নামিয়ে আনা হয়েছে। এই হজযাত্রীদের প্রত্যেকেই সৌদিতে বসবাসকারী; এবার বাইরে থেকে কেউই হজ পালনের সুযোগ পাননি।

হজের বিধি-বিধান পালনের সময় সৌদি সরকারের নির্দেশনা উপেক্ষা করা হলে জরিমানার বিধান করা হয়েছে। অনুমতি ছাড়া পবিত্র হজের স্থাপনায় প্রবেশ করলে এক হাজার সৌদি রিয়াল জরিমানা গুনতে হবে বলে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ঘোষণা দিয়েছে। বারবার একই ধরনের অপরাধ করলে জরিমানার পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। সূত্র: আরব নিউজ।

এসকে