• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২০, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ৩০, ২০২০, ০৯:৩১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৩০, ২০২০, ০৯:৩১ পিএম

বঙ্গোপসাগরে ভারতের জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বঙ্গোপসাগরে ভারতের জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা
গাইডেড মিসাইল করভেট আইএনএস কোরা থেকে জাহাজ ধ্বংসকারী ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। টার্গেট ছিল একটি পরিত্যক্ত যুদ্ধজাহাজ - স্পোকস পার্সন নেভি

আরব সাগরের পর এবার বঙ্গোপসাগরে নিজের শক্তি দেখাল ভারতীয় নৌসেনা। যুদ্ধজাহাজ থেকে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে উড়িয়ে দিল 'শত্রুপক্ষের' জাহাজ। শুক্রবার বঙ্গোপসাগরে নৌসেনার গাইডেড মিসাইল করভেট আইএনএস কোরা (INS Kora) থেকে জাহাজ ধ্বংসকারী ক্ষেপণাস্ত্র (AShM) ছোড়া হয়। ক্ষেপণাস্ত্রের টার্গেট ছিল নৌসেনারই একটি পরিত্যক্ত যুদ্ধজাহাজ। সেটিকে শত্রুপক্ষের জাহাজ সাজিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে সেই জাহাজটি কার্যত ভেঙে চুরমার হয়ে যায়। আগুনও ধরে যায় জাহাজের একাংশে।

শুক্রবার বঙ্গোপসাগরে নৌসেনার গাইডেড মিসাইল করভেট আইএনএস কোরা (INS Kora) থেকে জাহাজ ধ্বংসকারী ক্ষেপণাস্ত্র (AShM) ছোড়া হয়। এদিন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার কথা জানিয়ে ট্যুইট করে ভারতীয় নৌসেনা। সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবিও আপলোড করা হয়। 

ভারতীয় নৌসেনার মজুদাগারে বেশ কয়েক ধরনের জাহাজ ধ্বংসকারী ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে। তবে এদিন ঠিক কী ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে, তা জিয়ে কোনো বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। ট্যুইটে ভারতীয় নৌবাহিনীর মুখপাত্র শুধু জানান, 'বঙ্গোপসাগরে ভারতীর নৌসেনার গাইডেড মিসাইল করভেট আইএনএস কোরা থেকে জাহাজ ধ্বংসকারী ক্ষেপণাস্ত্রটি ছোড়া হয়। ক্ষেপণাস্ত্রটি সর্বোচ্চ দূরত্বে নিখুঁতভাবে আঘাত করে। হামলার লক্ষ্যে থাকা জাহাজটি ভেঙে গিয়ে আগুন ধরে যায়।'

২৩ অক্টোবর আরব সাগরে একই গোত্রের একটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে দেশটির নৌসেনা। মিসাইল করভেট আইএনএস প্রবাল (INS Prabal) থেকে ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রে হামলার লক্ষ্যে থাকা একটি পরিত্যক্ত জাহাজ ডুবে যায়। পরে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ছবি ও ভিডিও ট্যুইট করে ভারতীয় নৌসেনা। ভিডিয়োয় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার মুহূর্ত তুলে ধরেন নৌসেনার মুখপাত্র। আরব সাগরের পর এবার বঙ্গোপসাগরেও একই কায়দায় পেশি প্রদর্শন করল ভারতীয় নৌসেনা। সূত্র: এই সময়

এসকে