• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: নভেম্বর ২২, ২০২০, ১২:০১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ২২, ২০২০, ১২:০১ পিএম

সীমান্তে সন্ত্রাসবাদ

পাকিস্তানী রাষ্ট্রদূতকে তলব করল ভারত

পাকিস্তানী রাষ্ট্রদূতকে তলব করল ভারত
প্রতীকী ছবি

ভারত নিয়ন্ত্রিত ভূস্বর্গ খ্যাত উপত্যকা জম্মু-কাশ্মীরের নাগরোটায় বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে কড়া ভাষায় প্রতিক্রিয়া জানিয়ে নয়াদিল্লি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনের তথ্য মতে, শনিবার (২১ নভেম্বর) তাকে ভারতীয় পররাষ্ট্র দফতরে তলব করা হয়। এদিন মোদী সরকারের তরফ থেকে সীমান্ত সন্ত্রাসবাদ নিয়ে নিজেদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করার পাশাপাশি বিষয়টি আমলে নিতে জোর আহ্বানও  জানানো হয়। বলা হয়, ইসলামাবাদ যেন জঙ্গিদের মদত দেওয়া বন্ধ করে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সকালে গোয়েন্দাদের কাছ থেকে খবর পেয়ে নাগরোটার কাছে বান টোল প্লাজায় একটি ট্রাক থামান ভারতীয় জওয়ানরা। পরে ট্রাকের ভিতর থেকে গুলি চালানো শুরু হয়। এ সময় নিরাপত্তা বাহিনীও পাল্টা গুলি চালায়। শ্রীনগর ন্যাশনাল হাইওয়েতে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তিন ঘণ্টা ধরে সন্দেহভাজন জঙ্গিদের বন্দুক যুদ্ধ চলে। পরে চার সন্দেহভাজন নিহত হয়।

ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর দাবি, নিহতরা জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদের সদস্য। তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া জিনিস-পত্র বিশ্লেষণের ভিত্তিতে গোয়েন্দাদের দাবি জঙ্গিরা পাকিস্তান থেকে এসেছে।

নিহত জঙ্গিদের থেকে উদ্ধার হওয়া ডিজিটাল রেডিওটি ‘মাইক্রো ইলেকট্রনিক্স’ নামক এক পাকিস্তানি কোম্পানির। এবার যে স্মার্ট ফোনটি উদ্ধার হয়েছে, তা পাকিস্তানের সংস্থা ‘কিউ মোবাইলের’। নিহত জঙ্গিদের জুতাও পাকিস্তানের তৈরি।

সাম্প্রতিক পরিস্থিতি বিবেচনায় শনিবার পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ভারত। সীমান্তে সন্ত্রাস নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে ভারতের দাবি, পাকিস্তানকে জঙ্গিদের মদত দেওয়া বন্ধ করতে হবে। দেশের নিরাপত্তাকে সুরক্ষিত রাখতে যা যা পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন ভারত তাই নেবে বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছে নয়াদিল্লি।

এসকে