• ঢাকা
  • বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৭, ২০২১, ০৮:৪৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২৮, ২০২১, ০৮:৫২ এএম

কাপড় না খুললে যৌন হয়রানি নয়

ভারতে বিতর্কিত রায় স্থগিত

ভারতে বিতর্কিত রায় স্থগিত

দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে শিশুদের যৌন হয়রানি নিয়ে মুম্বাইয়ের উচ্চ আদালতের বিতর্কিত রায় স্থগিত করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ১৯ জানুয়ারি এক যৌন নির্যাতনের মামলার রায়ে বোম্বের নাগপুরের বিচারকরা অভিযুক্তের সাজার মেয়াদ কমানোর নির্দেশ দেয়।

আদালতের রায়ে বলা হয় যেহেতু অভিযুক্ত ব্যক্তি শিশুটির পরিহিত কাপড় না খুলে তার শরীরে হাত রেখেছেন তাই এটি যৌন নির্যাতন বলে গণ্য হবে না। আদালতের এই অযৌক্তিক সিদ্ধান্তে ভারতজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। চরম বিতর্কের মুখে বুধবার রায় স্থগিত করেন সর্বোচ্চ আদালত। একইসঙ্গে অভিযুক্ত আসামীর সাজার কমানোর নির্দেশনাও বাতিল করা হয়েছে।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনায় বলা হয়, বিতর্কিত এ রায় বহাল থাকলে ভবিষ্যতে এটি বিপজ্জনক নজির স্থাপন করতে পারে। এর অপব্যবহার শঙ্কা থেকেই এটি স্থগিত করা হচ্ছে। এ আদেশকে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত বলেও ক্ষোভ জানায় আদালত।

২০১৬ সালে ৩৯ বছর বয়সী নাগপুরের বাসিন্দা সাতীশ ১২ বছর বয়সী এক শিশুকে খাবারের লোভ দেখিয়ে বাসায় নিয়ে যান। এরপর আপত্তিকরভাবে শিশুটির শরীর স্পর্শ করে সে। শিশুর অভিভাবকের দাবি, তাকে বাসায় নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় সাতীশ। এমনকি সে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে শিশুটির পড়নের কাপড় খোলারও চেষ্টা করেছে বলে দাবি করা হয়।

অথচ উচ্চ আদালতের রায়ে বলা হয়, পোশাকের ওপর দিয়ে শরীর স্পর্শ করলে শরীরের সঙ্গে সরাসরি সংযোগ হয় না, তাই শিশুদের যৌন সুরক্ষা আইনে এটি অপরাধ বলে বিবেচিত হবে না।

বিতর্কিত এই রায় স্থগিত করার সঙ্গে রায়ের বিরুদ্ধে ভারতীয় অ্যাটর্নি জেনারেলকে পিটিশন দায়েরেরও নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

আরও পড়ুন