• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২১, ০২:১৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৫, ২০২১, ০২:১৯ পিএম

নিউজিল্যান্ডে সুনামির সতর্কতা প্রত্যাহার

নিউজিল্যান্ডে সুনামির সতর্কতা প্রত্যাহার

নিউজিল্যান্ডে তিনটি শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর দেশটিতে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়। তবে সাত ঘণ্টার ব্যবধানে এই সুনামির সতর্কতা প্রত্যাহার করা হয়েছে। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানায়।    

নিউজিল্যান্ডের উরাঞ্চলের উপকূলীয় এলাকায় শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানার পর ন্যাশনাল ইমারজেন্সি এজেন্সি এই সুনামি সতর্কতা জারি করে। তারপর থেকে উপকূল থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়া হয়। কয়েকটি শহরে মানুষ দ্রুত উঁচু স্থানে যাওয়ার সময় কিছুটা বিশৃঙ্খলা দেখা যায়। 

স্থানীয় সময় শুক্রবার (বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের পর) নিউজিল্যান্ডের গিসবোর্নে সাত দশমিক তিন মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। মূল শহর থেকে ১৭৮ কিলোমিটার দূরে ভূপৃষ্ঠের মাত্র ১০ কিলোমিটারের মধ্যে এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল চিহ্নিত করা করেছে মার্কিন ভূতাত্ত্বিক গবেষণা কেন্দ্র। উত্তর-পূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় অঞ্চলে জারি করা হয়েছে সুনামির সতর্কতা।

এরপর ভোর ৬টা ৪১ মিনিটে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় কেরমাডেক আইল্যান্ডে আঘাত করে ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প। আর সকাল ৮টা ২৮ মিনিটে ওই এলাকা আবারও কাঁপিয়ে দেয় ৮ দশমিক ১ মাত্রার প্রচণ্ড শক্তিশালী আরেকটি ভূমিকম্প।

প্যাসিফিক সুনামি সতর্কতা কেন্দ্র জানায়, সুনামি ঢেউ পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে তবে এখন পর্যন্ত কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। 

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন ইন্সটগ্রামে লিখেছেন, আশা করি সবাই ঠিক আছে।

মধ্যরাতে এই বড় ধরণের ভূকম্পনের পর অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে ঘরবাড়ি ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন। নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যাওয়ার জন্যে সবাইকে নির্দেশনা দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। 

এছাড়া আবহাওয়া বিষয়ক অনলাইন মাধ্যম জিওনেটের ওয়েবসাইটে এ পর্যন্ত ৬০ হাজার মানুষ গিসবোর্নের আশেপাশের এলাকা থেকে ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ার কথা জানান। তবে এ পর্যন্ত কোন হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন