• ঢাকা
  • রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৭, ২০২১, ০৫:৫৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৭, ২০২১, ০৬:০১ পিএম

ব্রিগেডে বিজেপির সমাবেশ

‘দিদি এখন শুধুই পিসি’, মমতাকে মোদীর কটাক্ষ

‘দিদি এখন শুধুই পিসি’, মমতাকে মোদীর কটাক্ষ

কলকাতায় উত্তাপ ছড়াচ্ছে ব্রিগেড ময়দানে বিজেপির সমাবেশ। রোববার (০৭ মার্চ) সমাবেশের শুরুতেই অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীকে মঞ্চে এনে চমক দেখায় ক্ষমতাসীন দল। এর আগে বক্তব্য রাখেন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ভোটে দাঁড়ানো বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, বাংলাদেশ সময় দুপুর তিনটায় মঞ্চে উপস্থিত হন বিজেপি প্রধান ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বক্তব্যের শুরুতেই বিজেপি সমর্থকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে এত বড় সমাবেশ আগে দেখেননি তিনি।

এরপর মিঠুন চক্রবর্তীকে বিজেপিতে স্বাগত জানিয়ে সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা আর প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন মোদী। একইসঙ্গে চলে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী দল তৃণমূল ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কঠোর সমালোচনা।

ব্রিগেডে নিজের বক্তব্যের শুরুতেই নন্দীগ্রামের আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর রেশ ধরে মোদী বলেন, কিছুদিন আগেই জ্বালানীর মূল্য বাড়ানোর প্রতিবাদে স্কুটারে করে নন্দীগ্রামে এসেছিলেন মমতা। ভাগ্যিস তিনি স্কুটার থেকে পড়ে যাননি, তাহলে যে রাজ্যে স্কুটিটি তৈরি হয়েছে তাদেরকেই শত্রু বানিয়ে ফেলতেন তিনি।

এছাড়াও মমতার ভাইপোখ্যাত তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রীর অবস্থান নিয়ে ঠাট্টা করেন মোদী। তিনি বলেন, “দিদি হিসেবে জনগণ আপনাকে নির্বাচিত করেছিল। কিন্তু আপনি শুধু ভাইপোর পিসি হিসেবেই নিজের দায়িত্ব সীমাবদ্ধ রেখেছেন।”

এসময় পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্য সরকার এবং তৃণমূলের পতন অনিবার্য দাবি করে বিজেপির উত্থানের বার্তা দেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। গণতন্ত্রের নামে তিনি বিভেদের রাজনীতি করেছেন বলেও সমালোচনা করেন মোদী।