• ঢাকা
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৭, ২০২১, ০৭:১১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৭, ২০২১, ০৭:১৫ পিএম

উইঘুর মুসলিম গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করলো চীন

উইঘুর মুসলিম গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করলো চীন

চীনের সংখ্যালঘু মুসলিম উইঘুর জনগোষ্ঠীর ওপর নির্যাতনকে ‘গণহত্যার’ সঙ্গে তুলনা করাকে মিথ্যাচার বলে দাবি করেছে বেইজিং। এধরণের অভিযোগকে হাস্যকর ও ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। রোববার (৭ মার্চ) বার্ষিক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

এছাড়াও উত্তর-পূর্বাচনলের শিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুরদের সরজমিনে পর্যবেক্ষণ করতে আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানায় চীন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেন, “গণহত্যার এসব গুজব উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং সম্পূর্ণ মিথ্যা।”
 
পশ্চিমা দেশগুলোর গণহত্যার ইতিহাসকে টেনে আন্তর্জাতিক গোষ্ঠীর সমালোচনা করে তিনি বলেন, “গণহত্যার কথা বললে লোকজন ষোড়শ শতাব্দীতে উত্তর অ্যামেরিকার আদিবাসী হত্যার, ঊনবিংশ শতাব্দীর আফ্রিকান কৃতদাসদের হত্যা, বিংশ শতাব্দীর ইহুদি হত্যা আর অস্ট্রেলিয়ার আদিবাসীদের নির্যাতনকেই বোঝেন।”

সম্প্রতি নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পর কানাডার সরকারও চীনের উইঘুরদের নির্যাতনকে ‘গণহত্যার’ সঙ্গে তুলনা করে নিন্দা জানায়। এর আগে জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে চীনের বিরুদ্ধে দশ লাখ উইঘুরদের কারিগরি প্রশিক্ষণের নামে ক্যাম্পে আটকে জোরপূর্বক কাজ করানোসহ বিভিন্ন মানবতাবিরোধী কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরা হয়েছিল। এরপর বিবিসির অনুসন্ধানী প্রতিবেদনেও চীনে উইঘুর নির্যাতনের প্রমাণ উঠে আসে।

পরবর্তীতে এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী সমালোচনার মুখে পড়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও ক্ষমতাসীন দল কমিউনিস্ট পার্টি।

আরও পড়ুন