• ঢাকা
  • সোমবার, ২১ জুন, ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৮, ২০২১, ০৪:০৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২৮, ২০২১, ০৪:৪২ পিএম

কারফিউর মধ্যে বিয়ে

ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হল বরকে

ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হল বরকে

করোনা সংক্রমণের কারণে ভারতের অনেক রাজ্যেই জারি হয়ে কঠোর বিধিনিষেধ। রাতে কারফিউ চলছে অনেক রাজ্যে। তবে ত্রিপুরা রাজ্যে নৈশ কারফিউ অমান্য করেই আয়োজন হয়েছিল একটি বিয়ের অনুষ্ঠান। সেখানে বাদ সাধেন ম্যাজিস্ট্রেট আর পুলিশ।

সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে দুইটি বিয়ের অনুষ্ঠান বন্ধ করে দেন আগরতলার জেলা প্রশাসক শৈলেশ কুমার যাদব। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও।

ভিডিওতে দেখা যায়, জেলাপ্রশাসকের নির্দেশে পুলিশ লাঠিচার্জ করছে এবং বিয়েবাড়ির লোকজনকে গ্রেপ্তার করছে। বিয়েবাড়িতে আগতদের ধমক দিতেও দেখা যায় শৈলেশ কুমার যাদবকে।

এসময় এক নারী তাকে বিয়ে আয়োজনের অনুমতিপত্র দেখালে সেই কাগজ ছিড়ে ফেলেন তিনি। এমনকি বিয়েবাড়িতে বরকে ঘাড় ধাক্কাও দিয়ে বেরিয়ে যেতে বলেন জেলা প্রশাসক।

বিয়েবাড়ি থেকে বেশ কয়েকজন গ্রেফতারের নির্দেশ দেন জেলা প্রশাসক। পাশাপাশি থানার ওসিকেও বরখাস্ত করা হয়।

কর্তৃপক্ষের বলিউড স্টাইলের এই অ্যাকশন অনেকের নজর কেড়েছে। আবার সমালোচনাও হয়েছে অনেক। জেলাশাসকের আচরণ ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

ঘটনার প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক শৈলেশ কুমার যাদবকে তলব করলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। পরে নিজের আচরণের জন্য ক্ষমা চান তিনি।

জেলা প্রশাসক জানান, সরকারী বিধিনিষেধ অমান্য করাতেই ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়েছিলেন তিনি।

 

আরও পড়ুন