• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ মে, ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: জুলাই ৯, ২০২১, ১০:৫৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ৯, ২০২১, ১১:০০ এএম

ছেলের সাইকেল দিয়ে লাঙ্গল বানালেন কৃষক

ছেলের সাইকেল দিয়ে লাঙ্গল বানালেন কৃষক
সংগৃহীত ছবি

ভারতের তামিলনাড়ুর থিরুথানি জেলার আগুর গ্রামে সরকার থেকে মেধাবীদের সাইকেল দেয়া হয়েছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতিতে সেই সাইকেলই যেন প্রধান সম্বল হয়ে উঠেছে।

লাঙ্গল কেনার পয়সা নেই তবে চাষাবাদ না করলে পরিবারের পেট চালানো দায়। তাই উপায় না পেয়ে ছেলের সেই সাইকেল দিয়েই লাঙ্গল বানিয়ে জমি চাষে নামলেন হতদরিদ্র এক কৃষক বাবা।

ভারতের তামিলনাড়ুর থিরুথানি জেলার আগুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

করোনাকালে ক্রমশ অভাব গ্রাস করেছে পরিবারকে। তাই কোনো উপায় না পেয়ে ছেলের সাইকেলকেই লাঙ্গল বানালেন কৃষক নাগরাজ।

তিনি জানান, করোনা আবহের মধ্যেও পেটের দায়ে চাষাবাদ চালিয়ে যেতে হয়েছে তাকে। ঋণ নিয়ে কয়েক মাস চালাতে পারলেও, লকডাউনে ঘরে সমস্ত সদস্যরা বন্দি থাকায় সেই টাকাও ফুরিয়ে আসে। ফলে রোজগারের জন্য চাষাবাদ শুরু করতে বাধ্য হন নাগরাজ।

ছেলের সাইকেলকে লাঙ্গল বানিয়ে নাগরাজ চাষ করছেন। সংবাদমাধ্যমের কাছে জানালেন, স্কুলে যাওয়ার জন্য এই সাইকেলটা ব্যবহার করত তার একমাত্র ছেলে। কিন্তু করোনা আবহে অনলাইনে পড়াশোনা করতে হচ্ছে বলেই স্কুলে যেতে হচ্ছে না তাকে। তাই সাইকেল কাজে লাগিয়েছেন নাগরাজ।

অনলাইন ক্লাস সেরে দুপুরে খাবার দিতে আসার পর চাষের কাজে বাবাকে সাহায্য করে নাগরাজের একমাত্র ছেলেও। সাইকেল চাষাবাদের কাজে ব্যবহার করায় কোনো দুঃখ নেই তার। বরং ছোট বয়সেই পরিবারের পাশে থাকতে পেরে সে খুশি। নিউজ ১৮ বাংলা।

জাগরণ/এমএ