• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ২২, ২০২১, ১১:০৮ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ২২, ২০২১, ০৫:০৮ এএম

ভূমধ্যসাগরে ফের নৌডুবি, ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

ভূমধ্যসাগরে ফের নৌডুবি, ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু
প্রতীকী ছবি

লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে অন্তত ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। তারা সবাই অভিবাসন প্রত্যাশী ছিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বুধবার (২১ জুলাই) লিবিয়ার রেড ক্রিসেন্ট তাদের উদ্ধার করে।

তিউনিসিয়ার রেড ক্রিসেন্টের বরাতে রয়টার্স জানায়, সেদেশের কোস্টগার্ড সাগর থেকে ৩৮০ জনের বেশি অভিবাসন প্রত্যাশীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

রেড ক্রিসেন্ট আরও জানায়, লিবিয়ার জুওয়ারা উপকূল থেকে রওনা দেয়া নৌকাটিতে সিরিয়া, মিশর, সুদান, ইরিত্রিয়া, মালি ও বাংলাদেশি অভিবাসন প্রত্যাশীরা ছিলেন।

সংস্থার কর্মকর্তা মংগি স্লিম বলেন, ১৭ জন বাঙালি মারা গেছে এবং ৩৮০ জনের বেশি অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে যারা লিবিয়ার জুয়ারা থেকে ইউরোপের পথে রওনা দিয়েছিল।

নিহতদের নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

সাম্প্রতিক সময়ে তিউনিসিয়ার উপকূলে বেশ কয়েকটি নৌযানডুবির ঘটনা ঘটেছে। অভিবাসনের প্রত্যাশায় তিউনিসিয়া ও লিবিয়া থেকে ইউরোপের উদ্দেশে, বিশেষ করে ইতালিতে পৌঁছানোর জন্য ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেয়ার ঘটনা বেড়েছে, যেহেতু আবহাওয়ার উন্নতি হয়েছে।

মূলত আফ্রিকা এবং মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধ ও দারিদ্র্য কবলিত অঞ্চলগুলো থেকে পালিয়ে নিরাপত্তা ও উন্নত জীবনের প্রত্যাশায় প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টা করে এসব অভিবাসন প্রত্যাশী।

ইউরোপের প্রধান গন্তব্য ইতালিতে গত কয়েক বছরে অভিবাসন প্রত্যাশীদের প্রবেশের সংখ্যা কমে এলেও ২০২১ সালে তা আবার বাড়তে শুরু করেছে। গত কয়েক বছরে ভূমধ্যসাগর দিয়ে লিবিয়া থেকে ইউরোপ যেতে চাওয়া অভিবাসন প্রত্যাশীদের নৌকাডুবিতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। 

জাগরণ/এসএসকে/এমএ