• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২১, ০৮:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ৩, ২০২১, ০২:২৩ পিএম

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তঃ

এনএলএফটির হামলায় বিএসএফের ২ জওয়ান নিহত

এনএলএফটির হামলায় বিএসএফের ২ জওয়ান নিহত
ছবি-সংগৃহীত ।

ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরার বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে ওই রাজ্যের বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী ন্যাশনাল লিবারেশন ফ্রন্ট অব ত্রিপুরার (এনএলএফটি) অতর্কিত হামলায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) দুই জওয়ান নিহত হয়েছেন। 

আজ মঙ্গলবার ত্রিপুরার বাংলাদেশ-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্তের কাছে টহলের সময় এনএলএফটির হামলায় ওই দুই জওয়ানের প্রাণহানি ঘটে।

বিএসএফ বলছে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ত্রিপুরার ঢালাই জেলার সীমান্তে অতর্কিত ওই হামলা হয়। নিহত দু’জনের মধ্যে বিএসএফের একজন উপ-পরিদর্শক আছেন। পরে চাওমানু পুলিশ স্টেশনের আওতাধীন আর সি নাথ সীমান্ত চৌরি কাছে এনএলএফটির সদস্যদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সংঘর্ষ হয়। 

ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলা থেকে প্রায় ৯৪ কিলোমিটার দূরে ঢালাই জেলা অবস্থিত। এই জেলার উত্তর এবং দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে বাংলাদেশের সীমান্ত রয়েছে।

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে মোট ৪ হাজার ৯৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে; যার ৮৫৬ কিলোমিটার ত্রিপুরার সঙ্গে। বিএসএফের একজন মুখপাত্র বলেছেন, তীব্র লড়াইয়ের সময় বিএসএফের উপ-পরিদর্শক ভুরু সিং এবং কনস্টেবল রাজ কুমার মারাত্মক আহত হন এবং পরে মারা যান তারা।

‌সংঘর্ষের স্থানে রক্তের দাগ মেলায় বিদ্রোহীরাও আহত হয়েছেন বলে ধারণা করছেন বিএসএফের ওই মুখপাত্র। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের উভয় শহীদ জওয়ান আঘাতের কাছে হেরে যাওয়ার আগে পর্যন্ত বীরত্বের সাথে লড়াই করেছেন।’ সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে ওই এলাকায় ব্যাপক তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিএসএফের কর্মকর্তারা বলেছেন, নিহত দুই জওয়ানের অস্ত্র সন্ত্রাসীরা ছিনিয়ে নিয়েছে। ত্রিপুরার বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহী গোষ্ঠী ন্যাশনাল লিবারেশন ফ্রন্ট অব ত্রিপুরাকে (এনএলএফটি) নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে ভারত।


সূত্র: এনডিটিভি।


জাগরণ/এসকেএইচ