• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৭, ২০২১, ০৭:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ২৭, ২০২১, ০১:২৩ পিএম

স্ত্রীর সামনেই নিজের ২ শিশুসন্তানকেসহ ৫ জনকে খুন

স্ত্রীর সামনেই নিজের ২ শিশুসন্তানকেসহ ৫ জনকে খুন

ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নিজের দুই সন্তান-সহ পাঁচ জনকে খুন করলেন এক ব্যক্তি। শুক্রবার রাতে ভারতের ত্রিপুরার খোয়াই জেলার ওই ঘটনায় নিহতদের মধ্যে রয়েছেন এক পুলিশ কর্মকর্তাও। ঘটনায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েক জন। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, উত্তর রামচন্দ্রঘাট এলাকার শেওড়াতুলির বাসিন্দা, পেশায় রাজমিস্ত্রি প্রদীপ দেবরায় মানসিক সমস্যার কারণেই এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন। প্রথমে বাড়িতে নিজের দুই শিশুসন্তানকে কুপিয়ে খুন করেন তিনি। এর পর স্ত্রীর ওপর চড়াও হন। কিন্তু তার স্ত্রী কোনোক্রমে পালিয়ে প্রাণে বাঁচেন। এর পর প্রদীপ রাস্তায় বেরিয়ে এক অটোচালককে খুন করেন। ধারাল অস্ত্রের কোপ মারেন আরও কয়েক জনকে।

ঘটনার খবর পেয়ে খোয়াই থানার সাব ইনস্পেক্টর সত্যজিৎ মল্লিক কয়েক জন পুলিশকর্মীকে নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন। প্রদীপকে নিরস্ত করতে গেলে হঠাৎই সত্যজিৎকে আক্রমণ করেন তিনি। ঘটনাস্থলেই সত্যজিতের মৃত্যু হয়। শেষ পর্যন্ত পুলিশকর্মীরা অভিযুক্তকে ধরে ফেলেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলসের এক কর্মী জানান, তারা কিছু বুঝে ওঠার আগেই প্রদীপ আচমকা সত্যজিতের গলায় ধারাল অস্ত্রের কোপ মারেন। 


সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।
এমইউ