• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২, ২০২১, ০৯:৪৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২, ২০২১, ০৩:৪৩ পিএম

জীবন্ত কুমিরকে মূর্তি ভেবে সেলফি, অতঃপর.....(ভিডিও)

জীবন্ত কুমিরকে মূর্তি ভেবে সেলফি, অতঃপর.....(ভিডিও)

মূর্তি ভেবে জড়িয়ে ধরে সেলফি তুলতে গিয়ে কুমিরের আক্রমণে আহত হয়েছেন ফিলিপাইনের এক পর্যটক। সম্প্রতি দেশটির কাগায়ান দ্য ওরো শহরের আমায়া ভিউ অ্যামিউজমেন্ট পার্কে অদ্ভুদ এই ঘটনা ঘটে।

এক প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘দ্য মিরর’জানায়, গত ১০ নভেম্ব রনেহেমায়াস চিপাডা নামের ষাটোর্ধ্ব বয়সী ওই পর্যটক অ্যামিউজমেন্ট পার্কে ঘুরতে গিয়েছিলেন৷ জলে আধডোবা সরীসৃপের আক্রমণে তিনি রক্তাক্ত হন৷

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনাটির ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, অ্যামিউজমেন্ট পার্কের জলাশয়ে নেমে কুমিরকে জড়িয়ে ধরে ছবি তুলছেন ওই ব্যক্তি৷ এক হাতে ধরে রয়েছেন মোবাইল ফোন৷ তিনি সেলফি তুলতে চাইছিলেন৷ ভেবেছিলেন জলের মধ্যে ওটা আসলে কুমিরের প্লাস্টিক মূর্তি!

এর পরই পর্যটক চিপারার বাঁ হাত কামড়ে ধরে ১২ ফুট দৈর্ঘ্যের কুমিরটি৷ তার পর তাকে ধরে ক্রমশ গভীর জলে টেনে নিয়ে যায়৷ আতঙ্কে চিৎকার করে ওঠেন উপস্থিত থাকা চিপারার আত্মীয় পরিজন এবং অন্যান্য দর্শকরা৷ পুরো ঘটনা মোবাইলে রেকর্ড করেছেন ওখানে উপস্থিত রোগেলিও পামিসা অ্যান্টিগা৷ তার পর তিনি সেটি শেয়ার করেন সামাজিক মাধ্যমে৷

কুমিরের হাত থেকে নিজেকে মুক্ত করতে সমর্থ হন চিপারা৷ তার পর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে৷ হাতে ব্যান্ডেজ করে দেওয়া হয়৷ পরে বাঁ হাতে অস্ত্রোপচারও করতে হয়৷ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তিনি ক্রমশ সেরে উঠছেন৷

আক্রান্ত চিপাডার পরিবার এই ঘটনায় দায়ী করেছে বিনোদন পার্ক কর্তৃপক্ষকে৷ তাদের মতে, জলাশয়ের পাশে সাবধানবাণী জানিয়ে বোর্ড দেওয়া প্রয়োজন ছিল৷ তাদের আক্ষেপ, যদি ওখানে সাবধান করে কোনও বোর্ড দেওয়া থাকত, তাহলে এই ঘটনা ঘটত না৷ যদিও সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিনোদন পার্ক কর্তৃপক্ষ৷ আহত ব্যক্তিকে চিকিৎসাবাবদ অর্থসাহায্য করা হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তারা৷ কিন্তু তাদের দাবি, পার্কের ওই অংশটি রেস্ট্রিক্টেড৷ সেই চিহ্নের পাশাপাশি পার্কের গাইডদের তরফে ক্রমাগত নিষেধাজ্ঞা ছিল বলেও তাদের দাবি৷

এমইউ