• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ মে, ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২১, ০১:২১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ৫, ২০২১, ০১:২৪ এএম

শ্রীলঙ্কার নাগরিককে পুড়িয়ে খুন, ‘‌পাকিস্তানের লজ্জার দিন’‌: ইমরান ‌

শ্রীলঙ্কার নাগরিককে পুড়িয়ে খুন, ‘‌পাকিস্তানের লজ্জার দিন’‌: ইমরান ‌
ফাইল ফটো।

পাকিস্তানে আবারও আক্রান্ত সংখ্যালঘু। এবার নিশানা শ্রীলঙ্কার এক নাগরিক। তাঁকে ধর্মদ্রোহী দাগিয়ে দেয়া হলো। সেই অভিযোগে তাঁকে পিটিয়ে খুন করা হলো। তার পর গায়ে আগুন লাগিয়ে দিল জনতা। আবার সেই ভয়ঙ্কর দৃশ্য রেকর্ড করল। কেউ আবার সেলফি তুলল সেই দগ্ধ দেহের সঙ্গে। ঘটনার ভয়াবহতা দেখে শিউরে উঠছেন নেট নাগরিকরা। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বললেন, ‘‌পাকিস্তানের লজ্জার দিন’‌।

রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে সিয়ালকোটের ঘটনা। সেখানে এক কারখানার ম্যানেজার ছিলেন ওই ব্যক্তি। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কিছু ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা গিয়েছে, ওই ব্যক্তিকে বেধড়ক মারধর করছে লোকজন। গায়ে আগুন লাগিয়ে দিচ্ছে। সেই সঙ্গে ধর্মাদ্রোহিতার বিরুদ্ধে স্লোগান দিচ্ছে। তাঁর গাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। 

পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান টুইটারে লিখেছেন, সমস্ত দোষীদের আইন মেনে অবশ্যই শাস্তি দেয়া হবে। পাক পাঞ্জাব প্রদেশ সরকারের মুখপাত্র হাসান খাওয়ার জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত ঘটনায় ৫০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত শেষ করা হবে। 

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, অভিযুক্তরা যে স্লোগান দিচ্ছে, তা তেহরিক–ই–লাব্বাইক পাকিস্তান (‌টিএলপি)‌–এর সদস্যরা দিয়ে থাকে। এই সংগঠন ধর্মাদ্রোহিতা–বিরোধী প্রচার চালায়। এর আগে ফরাসি পত্রিকা শার্লি এবদো–য় ইসলাম ধর্ম নিয়ে কৌতুকচিত্রের প্রতিবাদে তুমুল বিক্ষোভ দেখিয়েছিল এই সংগঠন। তাতে প্রাণ হারিয়েছিলেন সাত পুলিশ কর্মী। গত মাসেই এই সংগঠনের নিষিদ্ধকরণের তকমা তুলে দেয়া হয়। মনে করা হচ্ছে সিয়ালকোটের ঘটনায় তাদেরই হাত রয়েছে।

 

এসকেএইচ//