• ঢাকা
  • সোমবার, ২৩ মে, ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৫, ২০২১, ০১:৩৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ১৪, ২০২১, ০৭:৩৭ পিএম

বেলারুশে বিরোধী দলের নেতাকে ১৮ বছরের কারাদণ্ড

বেলারুশে বিরোধী দলের নেতাকে ১৮ বছরের কারাদণ্ড
বেলারুশে বিরোধী দলের নেতা সের্গেই টিখানোভস্কি। ফাইল ফটো।

বেলারুশে বিরোধী দলের নেতা সের্গেই টিখানোভস্কিকে ১৮ বছরের জেল দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত।

দেশটির কতৃত্ববাদী নেতা আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোর বিরুদ্ধে গত বছর অভূতপূর্ব বিক্ষোভ আয়োজন করায় টিখানোভস্কিকে এ সাজা দেওয়া হয়। খবর আলজাজিরার।

সংবাদমাধ্যম সোভেটস্কায়া বেলারুশ এক প্রতিবেদনে জানায়, মাসব্যাপী বিচার কার্যক্রম চালানোর পর ৪৩ বছর বয়সি টিখানোভস্কিকে দাঙ্গা সৃষ্টি এবং সামাজিক ঘৃণা উসকে দেওয়ার অভিযোগে আদালত দোষী সাব্যস্ত করেছেন।

টিখানোভস্কির স্ত্রী স্বেচ্ছায় নির্বাসিত গণতন্ত্রকামী নেত্রী সিভাতলানা সিখানৌস্কায়া আদালতের এ রায় প্রত্যাখ্যান করেছেন।

টুইটারে তিনি লেখেন, স্বৈরশাসক জনসম্মুখে তার শক্তিশালী প্রতিপক্ষের ওপর প্রতিশোধ নিলেন।

এদিন টিখানোভস্কি ছাড়াও ৬৫ বছর বয়সি প্রবীণ রাজনীতিবিদ মিকোলা স্টেটকেভিচের ১৪ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত।

স্টেটকেভিচ ২০১০ সালের নির্বাচনে লুকাশেঙ্কোকে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। সে সময় তাকে ছয় বছরের জেল দেওয়া হয়। সাজা ভোগ করার পর তিনি ২০১৫ সালে মুক্তি পান। এর পর তাকে ২০২০ সালে নির্বাচনে অংশ নিতে বাধা দেওয়া হয়। ২০২০ সালের মে মাস থেকে টিখানোভস্কি ও স্টেটকেভিচকে বন্দি করে রাখা হয়েছে।

১৯৯৪ সাল থেকে ক্ষমতায় রয়েছেন লুকাশেঙ্কো। ২০২০ সালে নির্বাচনের পর থেকে অভূতপূর্ব বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন তিনি। এর পর থেকেই বিরোধীদের ওপর দমন পীড়ন চালাচ্ছেন কতৃত্ববাদী এ নেতা। জনপ্রিয় বিরোধী নেতাদের হয় জেলে ঢোকানো হয়েছে অথবা পালাতে বাধ্য করেছেন এ স্বৈরশাসক। টিখানোভস্কি ২০২০ সালের আগস্টে লুকাশেঙ্কোর বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু এর আগেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

এসকেএইচ//