• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১০, ২০২২, ০৭:১০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১০, ২০২২, ০১:১০ পিএম

যৌনক্ষমতা বাড়াতে গোপনাঙ্গ খেলেন নরখাদক

যৌনক্ষমতা বাড়াতে গোপনাঙ্গ খেলেন নরখাদক

‘ডেটিং অ্যাপ’-এর মাধ্যমে পরিচয়। এরপর টুকটাক কথাবার্তা। হঠাৎ একদিন আমন্ত্রণ জানানো হলো বাসায়। কিন্তু কে জানতো, তিনি নরখাদকের পাল্লায় পড়তে যাচ্ছেন!

জার্মানের বার্লিনের শিক্ষক আর স্টেফানের (৪২) নজর পড়েছিল নরমাংসে! তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সদ্য পরিচিতকে নিজের বাড়িতে আমন্ত্রণ জানিয়ে তাকে হত্যা করে মাংস খেলেন তিনি।
 
বার্লিনের ওই আদালত নরখাদক স্টেফানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা দিয়েছে। বিচারক ম্যাথিয়াস শার্টজ রায় ঘোষণা করে বলেছেন, ‘আমার তিন দশকের কর্মজীবনে এমন ঘটনা দেখিনি।’

পুলিশি তদন্তে জানা গেছে, ঘটনাটি ২০২০ সালের। নিহত ব্যক্তির সঙ্গে ‘ডেটিং অ্যাপ’-এর মাধ্যমে পরিচয়। তার পর তাকে নিজের বাড়িতে ডেকে মাদক খাইয়ে গলা কেটে হত্যা করেন। সম্ভবত, অপরাধীর ধারণা ছিল মানুষের যৌনাঙ্গ খেলে যৌনক্ষমতা বাড়বে। তাই ‘শিকারের’ যৌনাঙ্গ কেটে খান তিনি।

স্টেফানের আইনজীবীর যুক্তি ছিল স্টেফান এবং নিহত ব্যক্তি দু’জনেই সমকামী ছিলেন এবং সে কারণেই ওই ডেটিং অ্যাপের মাধ্যমে পরিচয় হয়েছিল। পাশাপাশি খুনের অভিযোগ অস্বীকার করে স্টেফান দাবি করেন, ওই ব্যক্তি তার বাড়িতে এসে হঠাৎ মারা গিয়েছিলেন। তার পর তিনি তার যৌনাঙ্গ এবং দেহের অন্য কিছু অংশ কেটে খেয়েছিলেন। কিন্তু বিচারক সেই যুক্তি খারিজ করে দেন।

ইউএম