• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ মে, ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২২, ০২:২৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৯, ২০২২, ০৮:২৩ পিএম

ভোজ্যতেল নিয়ে ব্যবসায়ীদের ভোজবাজি

ভোজ্যতেল নিয়ে ব্যবসায়ীদের ভোজবাজি
সংগৃহীত ছবি

দুই সপ্তাহ তেলের দাম না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী। অথচ ব্যবসায়ীরা বলছেন, বোতলজাত তেলের দাম লিটারে বেড়েছে ৫ টাকা।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সচিবালয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রীর বৈঠক শেষে এমন দু’রকম সিদ্ধান্ত পাওয়া যায়।

তেলের বাড়তি দামে ক্ষোভ জানিয়েছে ভোক্তারা। বেশ কয়েক দফা বেড়েছে ভোজ্যতেলের দাম। আবারও দাম বাড়ানোর চেষ্টা ব্যবসায়ীদের। এবারও তাদের অজুহাত আন্তর্জাতিক বাজারের দাম।

এ পরিস্থিতিতে তেলের বাজারের লাগাম টেনে ধরতে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বাণিজ্যমন্ত্রী। পরে তিনি জানান, ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১৬০ টাকা লিটারে কেনা যাবে বোতলজাত সয়াবিন তেল। দু সপ্তাহ পর আন্তর্জাতিক বাজার বিবেচনা করা দামের পরিবর্তন হতে পারে।

একই বৈঠক থেকে বেরিয়ে বিপরীত কথা বলছেন ভোজ্যতেল ব্যবসায়ীরা। তারা জানান, ১৭ জানুয়ারি থেকে নিজেরাই লিটারে ৮ টাকা বাড়িয়েছে তেলের দাম। তবে মন্ত্রণালয়ের সাথে বৈঠকের পর ৩ টাকা কমানোর আশ্বাস দিয়েছেন। অর্থাৎ প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল এখন থেকে ১৬৫ টাকায় বিক্রি হবে।

দফায় দফায় তেলের দাম বৃদ্ধিতে আতঙ্কিত ভোক্তারা। বাড়তি দামে ক্ষুব্ধ তারা।

প্রতিবছর দেশে ভোজ্যতেলের চাহিদা ২০ থেকে ২২ লাখ টন। যার পুরোটাই আমদানি করে হাতেগোনা পাঁচ থেকে ছয়টি প্রতিষ্ঠান।

জাগরণ/এসএসকে/কেপিএ