• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯
প্রকাশিত: মে ৩১, ২০২২, ১২:৫৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ৩০, ২০২২, ০৬:৫৭ পিএম

সেই বালকের সঙ্গে ১৩ বছর পর ওবামার সাক্ষাৎ

সেই বালকের সঙ্গে ১৩ বছর পর ওবামার সাক্ষাৎ
সংগৃহীত ছবি

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সামাজিক মাধ্যম টুইটারে জ্যাকব ফিলাডেলফিয়ার সঙ্গে ভার্চুয়াল রিইউনিয়ন এর ভিডিও প্রকাশ করেছেন ।

স্মৃতিকাতর ওবামা ২০০৯ সালে যখন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ছিলেন সে সময়ে হোয়াইট হাউসে এক সাক্ষাতে বালক জ্যাকব ওবামার মাথা স্পর্শ করে বলেছিলো, ‘তোমার চুল আমার চুলো মতো’। ওবামার চুল ছুঁয়ে দেখা বালকের ছবি সে সময়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

২০০৯ সালে হোয়াইট হাউস পরিদর্শনের সময় জ্যাকবের বয়স ছিলো মাত্র পাঁচ বছর।  জ্যাকবের সঙ্গে ছিলেন তার মা-বাবা ও বড় ভাই। ওবামার সঙ্গে সাক্ষাতের সময়ে বালক জ্যাকব প্রেসিডেন্টকে জিজ্ঞেস করে, ‘তোমার চুল কি আমার চুলের মতো? বালকের কৌতুহল দেখে ওবামা মাথা নীচু করে বালকের হাতের নাগালে নিয়ে আসেন। যাতে করে বালক চুল ছুঁয়ে দেখতে পারে এবং তার কৌতুহল মেটাতে পারে। সেই মুহূর্তটি ক্যামেরায় ধারণ করা হয়। পরবর্তীতে ওই ছবির শিরোনাম হয়ে যায় ‘আমার মতো চুল’।

প্রায় ১৩ বছর পর জ্যাকবের সঙ্গে ভিডিও কলে সাক্ষাৎ করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। জ্যাকব এখন হাই স্কুলে পড়া কিশোর। ওই ভিডিও কলে তারা ১৩ বছর আগের সাক্ষাতের কথা স্মরণ করেন।

ভার্চুয়াল সাক্ষাতের ওই ভিডিও টুইটারে শেয়ার করার পর প্রায় ১৪ লাখ ভিউ হয়েছে। কয়েক হাজার মানুষ কমেন্ট করেছেন এবং ভিডিওটি লাইক করেছেন। এক ভক্ত কমেন্ট করেছেন, ‘প্রিয় প্রেসিডেন্ট ওবামা। এই ভিডিওটি দেখে আমার চোখে পানি চলে এসেছে। আমাকে একটি বিষয় স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে যে, আমরা যদি কঠোর পরিশ্রম করি  আর যদি আত্মবিশ্বাস থাকে তাহলে আকাশের তারাও স্পর্শ করতে পারি। আপনার শাষণকাল চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে এবং আমি গর্বের সঙ্গে বলতে চাই যে আপনিই আমার প্রেসিডেন্ট।’

আরেকজন লিখেছেন, “ছবিটি আমার খুবই পছন্দ। ছবিটার কথা খুব ভালই মনে আছি আমার। তরুণ জ্যাকবকে দেখে আমি আপ্লুত। যে এখন হাই স্কুল গ্যাজুয়েশন করছে। বালকের সঙ্গে আপনার ছবি যেমন আমার খুব ভাল লেগেছিলো তেমনই এখনো আপনি যা করেন সেসব ভাল লাগে। আপনি এভাবেই আমাদের দেশের জন্য এবং আমাদের শিশুদের জন্য কাজ করে যান। ভিডিওটি দারুণ।

 

ভিডিওতে দেখা যায়, বারাক ওবামা জ্যাকবকে বলছেন, ‘আমার মনে পড়ছে তুমি আমাকে বলছিলে যে পরেরবার যখন আমাদের দেখা হবে তখন তোমার চুল সাদা হয়ে যাবে।’ 

প্রশ্ন শুনে ভিডিওতে হেসে ওঠে জ্যাকব এবং ওবামাকে বলেন, দেখা যাচ্ছে আমি ভুল বলিনি।

পাঁচ মিনিটের ভিডিও ক্লিপে জ্যাকব ওবামাকে বলেছেন, হোয়াইট হাউসের ওই সাক্ষাৎ আমার জীবনের একটি উল্লেখযোগ্য দিন। ভিডিও কলে গল্প করা সময় জ্যাকব ওবামাকে জানায় সে মেমফিস ইউনিভারসিটিতে রাষ্ট্র বিজ্ঞানে পড়ার পরিকল্পনা করছে। হোয়াইট হাউস সফরই তাকে রাষ্ট্র বিজ্ঞানে পড়তে উৎসাহিত করেছে বলে জানায় জ্যাকব।

ওবামা জ্যাকবকে বলেন, ‘আমি যখন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করি সে সময়ে ওই ছবিটিই অনেক মানুষকে আশাবাদী করেছে।’

ওবামা আরও বলেন, আমার মনে পড়ে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার পরই আমি মিশেলকে এবং আমার কিছু স্টাফকে বলেছিলাম, সফল হতে লে তরুণ প্রজন্ম বিশেষ করে আফ্রিকান বংশোদ্ভুত অ্যামেরিকান, বিভিন্ন বর্ণের মানুষের আস্থা অর্জন করতে হবে। তাদেরকে বোঝাতে হবে ওভাল অফিস পরিচালনাকারী মানুষটি তাদের মতোই একজন মানুষ।

জাগরণ/আন্তর্জাতিক/এমএ